স্টাফ রিপোর্টার, কোচবিহার: সরকারি বাসে পড়ুয়াদের অর্ধেক ভাড়া চালুর দাবিতে পথে নামল এসএফআই৷ বৃহস্পতিবার এ নিয়ে কোচবিহারে বিক্ষোভ ও ঘেরাও কর্মসূচি পালন করল এই বাম ছাত্র সংগঠন৷

তাদের দাবি, উত্তরবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহণ সংস্থা-সহ রাজ্যের সমস্ত সরকারি পরিবহণে ছাত্রছাত্রীদের জন্য অর্ধেক ভাড়া চালু করতে হবে৷ এই দাবিতে তারা কোচবিহারে উত্তরবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহণের কোচবিহার ডিপোতে বিক্ষোভ ও ঘেরাও কর্মসূচি পালন করে।

আরও পড়ুন: সকাল হলেই গ্রেফতারির শঙ্কা তৃণমূল প্রতিনিধিদের!

এদিন এই কর্মসূচি উপলক্ষ্যে উপস্থিত ছিলেন এসএফআই-এর সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক বিক্রম সিং, রাজ্য এসএফআই-এর সভাপতি-সহ অন্য নেতারা। এদিনের কর্মসূচিতে রাজ্যের পাশাপাশি কেন্দ্রীয় সরকারের বিভিন্ন নীতির বিরুদ্ধে সরব হন এসএফআই নেতারা।

এসএফআই-এর সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক বিক্রম সিং তৃণমূল ছাত্র পরিষদের তোলাবাজি নিয়ে বলতে গিয়ে চম্বলের ডাকাতের সঙ্গেও তুলনা করেন। তিনি বলেন, ‘‘তৃণমূল ছাত্র পরিষদ কোনও ছাত্র সংগঠন নয়৷ ডাকাতদের সংগঠন এক সময় যখন চম্বলের ডাকাতরা টাকা তুলত, ঠিক সেই ভাবেই এই রাজ্যের ছাত্র ছাত্রীদের কাছ থেকে টাকা তোলা হচ্ছে।’’

আরও পড়ুন: জানেন কোন কারণে এই স্টেশনের রং গেরুয়া করার নির্দেশ মুখ্যমন্ত্রীর!

পরে তিনি সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে বলেন, ‘‘এই রাজ্যে তৃণমূল কংগ্রেস ও বিজেপি একে অপরকে বাড়তে সাহায্য করছে৷ তুষ্টিকরণের রাজনীতি এক ধরনের সাম্প্রদায়িক রাজনীতি৷ যে বাংলায় এত দিন সম্প্রতি বিরাজ করেছে, সেখানে সাম্প্রদায়িকতা ঢুকছে৷ যার ফলে বিজেপি নিজেকে শক্তিশালী করছে এই রাজ্যে। এদিনের বক্তারা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও মুখ্যমন্ত্রীর তীব্র সমালোচনা করেন।’’

আরও পড়ুন: প্রাণ থাকবে এমন পাথুরে গ্রহের সন্ধান পেলেন বিজ্ঞানীরা

এদিন সরকারি বাসে অর্ধেক ভাড়া প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে বিক্রম সিং জানান, সারা দেশের বিভিন্ন রাজ্যে এই নিয়ে এসএফআই আন্দোলন করছে৷ কর্নাটক, হিমাচল প্রদেশে তাঁদের আন্দোলনের কাছে নতিস্বীকার করে ছাত্রছাত্রীদের জন্য বাসের ভাড়া মকুব করেছে সেই রাজ্যের সরকার। তাই এই রাজ্যেও বাধ্য হবে। তবে তাঁর আশংকা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এই নিয়ে কিছুই করবেন না৷ কারণ, তাঁর কোনও ছাত্র ছাত্রীদের নিয়ে অবেগ নেই।

আরও পড়ুন: মানসিক নির্যাতনের অভিযোগে মেডিক্যালে নার্সদের বিক্ষোভ