সিংহের পৌরুষের পরিচয় দেয় তাঁর কেশর। গবেশনায় দেখা গেছে, সিংহীরা সঙ্গী বাছাইয়ের সময় সিংহের কেশরের দিকে নজর দেয়। লম্বা কেশরের অধিকারী সিংহেরা অগ্রাধিকার পায়। এইত গেল পশুদের কথা। এইবার আসা যাক পুরুষদের ফ্যাশনের কথা। এই ফ্যাশানে জামাকাপড়ের কথা বলা হচ্ছে না। বলা হচ্ছে দাঁড়ির রকমারি কাটছাঁটের কথা। পুরুষেরা সাধারণত কোনো খেলোয়াড় বা নায়কের নতুন ধরনের চুল বা দাঁড়ির কাটে উদ্বুদ্ধ হয়ে নিজের চেহারাতেও সেরকম একটি কাটে ভিন্নতা আনার চেষ্টা করেন। কিন্তু সবাইকে সবকিছু ঠিকভাবে মানিয়ে উঠে না। বিশেষ করে দাঁড়ির কাটে খেয়াল রাখা উচিৎ মুখের আকৃতিটি কেমন। কেননা মুখের আকৃতির সাথে সামঞ্জস্য রেখে দাঁড়ির কাটটি দিলে পুরুষদের অনেক বেশি আকর্ষণীয় লাগে। আসুন জেনে নিই কোন আকৃতির মুখে ঠিক কেমন ধরনের দাঁড়ির কাট মানায়।
গোলাকার মুখের জন্য :  আপনার মুখের আকৃতি যদি গোলাকার হয়ে থাকে তাহলে কোনোভাবেই আপনার দাঁড়ির কাটটি প্রশস্ত হওয়া উচিৎ না। কেননা এতে করে মুখের আকৃতি আরও বেশি গোলাকার দেখানোর সম্ভাবনা বেশি থাকে। তাই আপনার দাঁড়ির কাটটি এমনভাবে দিন যেন এর ফলে আপনার মুখটা কিছুটা লম্বাটে দেখায়। এর জন্য দাঁড়ির নিচটুকু একটু বড় রাখুন এবং পাশে গালের অংশে হালকা দাঁড়ি রাখুন। দাঁড়ির কাটটি এমন হবে যাকে প্রচলিত ভাষায় বলা হয়ে থাকে বকরি কাট বা ছাগল কাট দাঁড়ি। এক্ষেত্রে আপনি চিবুকটি কিছুটা কম লম্বাটে রাখতে পারেন।
লম্বাটে মুখের জন্য : গোলাকার মুখের আকৃতির জন্য যে ধরনের দাঁড়ির কাট তার ঠিক বিপরীত কাটটি হবে লম্বাটে মুখের জন্য। অর্থাৎ এই কাটে আপনি চিবুকের অংশে দাঁড়ি ছোট ছোট রেখে পাশের অংশে একটু বড় দাঁড়ি রাখতে পারেন। এতে করে মুখের পাশের অংশটি বেশ ভরাট দেখাবে। তবে লম্বাটে মুখে চিপের অংশটি বড় রাখলে দেখতে বেশ আকর্ষণীয় লাগে।
চতুর্ভূজাকৃতির মুখের জন্য : কারও কারও মুখের আকৃতি কিছুটা চতুর্ভূজাকৃতির মত। এই ধরনের আকৃতির মুখের জন্য দাঁড়ির কাটটি হবে একেবারে গোলাকার মুখের দাঁড়ির কাটের ন্যায়। গালের অংশে ছোট ছোট দাঁড়ি এবং চিবুকে একটু বড় দাঁড়ি থাকবে অর্থাৎ দাঁড়ির কাটটি ছাগল দাঁড়ির মত হবে।
বড় মুখের জন্য : বড় ধরনের মুখের জন্য দাঁড়ির কাটটি হবে একেবারে ভিন্ন ধরনের। এর আসল উদ্দেশ্যই থাকবে মুখের আকৃতিটাকে কিছুটা ছোট দেখানো। এর জন্য দাঁড়ি বেশ বড় রাখতে পারেন। প্রয়োজনে গোঁফের অংশটিও একটু বড় করতে পারেন।
ছোট মুখের জন্য : ছোট আকৃতির মুখে একেবারে ছোট একটি দাঁড়ির কাট দিতে পারেন। এই ধরনের মুখে দাঁড়ি বড় রাখলে খুব একটা ভাল দেখায় না। এজন্য খোঁচা খোঁচা হালকা দাঁড়ি রাখলেই পুরুষদের দেখতে বেশ আকর্ষণীয় লাগে।
ডিম্বাকৃতির মুখের জন্য : আপনি যদি ডিম্বাকৃতি মুখের অধিকারী হন তাহলে আপনি অনেক বেশি সৌভাগ্যবান পুরুষদের মাঝে একজন। কেননা পুরুষদের একটি আদর্শ মুখের আকৃতি হল এই ডিম্বাকৃতির মুখ। এই ধরনের আকৃতির মুখে যেকোনো ধরনের দাঁড়ির কাটই খুব সুন্দর মানিয়ে যায়। তাই এই আকৃতির মুখে যেকোনো কাটই আপনি নিঃসন্দেহে দিতে পারে৷