ফাইল ছবি

ফরিদবাদ: মাসাজ পার্লারের আড়ালে দীর্ঘদিন ধরেই রমরমিয়ে চলছিল দেহব্যবসা৷ সেন্ট্রাল থানার পুলিশ ফরিদাবাদের একটি আবাসনে হানা দিয়ে সেক্স র‍্যাকেটের পর্দাফাঁস করল পুলিশ৷ ঘটনাস্থল থেকে পাঁচ মহিলা সহ মোট আটজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে৷ পুলিশ সূত্রে খবর, শহরে এই ধরণের আরও সেক্স র‍্যাকেট সক্রিয় রয়েছে শহরে।  সেগুলির খোঁজে খুব দ্রুত সেই জায়গাগুলিতে অভিযান চালানো হবে।

জানা গিয়েছে, সেন্ট্রাল থানার পুলিশের কাছে  এই বিষয়ে গোপন সূত্রে খবর আসে।  শহরের একটি আবাসনে মাসাজ পার্লারের আড়ালে দেহ ব্যবসা চলছে৷ এরপরেই সেন্ট্রাল ওসি একটি দল গঠন করে এক পুলিশকর্মীকে গ্রাহক সাজিয়ে মাসাজ পার্লারে পাঠান৷ সেখানে কথা বলার পরেই ওই পুলিশকর্মী বাকি দলকে ইশারা করেন৷ এরপরেই পুলিশের দল মাসাজ পার্লারে হানা দেয়৷

ঘটনাস্থল থেকে পাঁচ যুবতী ও তিন যুবককে গ্রেফতার করা হয়৷ ধৃত যুবতীদের বয়স ১৮ থেকে ২৫ বছরের মধ্যে৷ ধৃত যুবতীরা দিল্লি, উত্তরাখণ্ড, উত্তরপ্রদেশ ও নেপালের বাসিন্দা বলে জানা গিয়েছে৷ জিজ্ঞাসাবাদ করার পর পুলিশ যুবতীদের মেডিকেল টেস্টের জন্য পাঠিয়েছে৷ পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, দেহব্যবসায়ীরা একজন গ্রাহকের কাছ থেকে পাঁচ থেকে ১০ হাজার টাকা আদায় করেন৷ ভিন রাজ্য থেকে যুবতীদের নিয়ে এসে দেহব্যবসা করান হত বলে অভিযোগ৷