নাগপুর: সেক্স র‍্যাকেটের পর্দাফাঁস! এই ঘটনায় দুইজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে৷ দুটি মেয়েকেও উদ্ধার করা হয়েছে৷ তাদের মধ্যে একজন ১৪ বছরের নাবালিকা বলে জানা গিয়েছে৷

পুলিশের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী অভিযুক্তদের পরিচয় নিতেশ পুরী ও রাজু মেশরাম৷ দুজনেই হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেছে পুলিশ৷ জানা গিয়েছে, রাজু একটি বিলাশ বহুল বাংলোয় ম্যানেজার হিসেবে কাজ করত৷ ওই বাংলোর মালিক না থাকার সুযোগে সে সেখানে দেহব্যবসা শুরু করে৷ প্রতিঘন্টায় দুহাজার টাকার বিনিময়ে ঘর ভাড়া দিত সে৷

টিওআইয়ের খবর অনুযায়ী, পুলিশ ওই বাংলোর মালিকের তল্লাশি শুরু করেছে৷ পুবলিশ সূত্রে খবর, এসিপি শ্রীকান্ত ও ডিসিপি দীপালি মাসিরকরের নেতৃত্বে একটি দল গঠন করে ওই বাংলোয় তল্লাশি চালানো হয়৷ পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে আপত্তিজনক সামগ্রীও উদ্ধার করে৷ অভিযুক্ত মেয়েদের টাকার লোভ দেখিয়ে দেহব্যবসার লাগিয়েছিল৷

পুলিশের অনুমান, তিনজন মিলে সেক্স র‍্যাকেট চালাচ্ছিল৷ কম সময়ে প্রচুর টাকা উপার্জন করাই ছিল তাদের লক্ষ্য৷ বাংলোর মালিক এই র‍্যাকেটের সঙ্গে যুক্ত বলেই অনুমান পুলিশের৷