নয়াদিল্লি: সোমবার থেকে শুরু হতে যাচ্ছে আইটিটিএফ ওয়ার্ল্ড ট্যুর অস্ট্রেলিয়ান ওপেন৷ টুর্নামেন্টে অংশ নিতে কার্যত অর্ধেক দল নিয়ে মেলবোর্ন উড়ে গেল ভারত৷ বিমান বন্দরেই আটকে গেলেন দলের সাতজন সদস্য৷ যাঁদের মধ্যে রয়েছেন কমনওয়েলথ গেমসে সোনাজয়ী তারকারাও৷

আরও পড়ুন: ৫৩ বছরের খরা কাটিয়ে অবশেষে লক্ষ্যভেদ

অতিরিক্ত বুকিংয়ের কথা জানিয়ে মণিকা বাত্রাসহ সাতজন ভারতীয় টেবিল টেনিস তারকাকে এয়ার ইন্ডিয়ার বিমানে উঠতে দেওয়া হল না৷ মণিকাদের ইন্দিরা গান্ধী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ফেলে রেখে বাকি দশজনকে রওনা দিতে হয় মেলবোর্নের উদ্দেশ্যে৷

ক্ষুব্ধ মণিকা সোশ্যাল মিডিয়ায় এমন হতাশাজনক অভিজ্ঞতার কথা জানান৷ টুইট করে তিনি ক্রীড়ামন্ত্রী রাজ্যবর্ধন সিং রাঠোর ও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নজর কাড়েন এই বিষয়ে৷

আরও পড়ুন: ৪০০ মিটারে রেকর্ড ভাঙলেন ভারতের দৌড়বিদ

টুইটে মণিকা লেখেন, ‘খেলোয়াড় ও অফিসিয়াল মিলিয়ে ১৭ জনের টেবিল টেনিস দল, যাতে আমি ছাড়াও কমনওয়েলথ গেমসে পদকজয়ী শরৎ কমল, মৌমা দাস, মাধুরিকা, হরমীত, সুতীর্থা, সাথিয়ানরা রয়েছে৷ আগামী কাল থেকে শুরু হতে যাওয়া আইটিটিএফ ওয়ার্ল্ড ট্যুর অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে অংশ নিতে এয়ার ইন্ডিয়া ০৩০৮ বিমানে মেলবোর্ন উড়ে যাওয়ার কথা ছিল আমাদের৷ এয়ার ইন্ডিয়ার কাউন্টারে গিয়ে জানতে পারি বিমানে অতিরিক্ত সিট বুকিং হয়েছে এবং আমাদের মধ্যে ১০ জন মেলবোর্ন যেতে পারবে ওই বিমানে৷ আমরা সাতজন এখনও বিমান ধরতে পারিনি৷’

আরও পড়ুন: প্রথম ম্যাচে ইংল্যান্ডের সঙ্গে ড্র ভারতের মেয়েদের

ট্রাভেল এজেন্সির নাম করে এয়ার ইন্ডিয়ার এমন সমন্বয়ের অভাবকে কাঠগড়ায় তোলেন মণিকা৷ তিনি ক্রীড়ামন্ত্রী ও প্রধানমন্ত্রীর অফিসের সাহায্য প্রার্থনা করেন৷

আরও পড়ুন: বিশ্বকাপে রুপো ভারতের

যদিও সমস্যার সমাধানে ক্রীড়ামন্ত্রী বা প্রধানমন্ত্রীকে হস্তক্ষেপ করতে হয়নি৷ মণিকা টুইট করার পরেই স্পোর্টস ইন্ডিয়ার ডিরেক্টর জেনারেল নীলম কাপুর নিজে থেকে উদ্যোগ নেন মণিকাদের জন্য রাতের অন্য বিমানের ব্যবস্থা করার৷ তাঁর হস্তক্ষেপেই পরে মণিকারা বোর্ডিং পাস ও পরিবর্তিত বিমানের টিকিট হাতে পান৷ পরে মণিকা অন্য একটি টুইটে কৃতজ্ঞতা জানান নীলম কাপুর, ক্রীড়ামন্ত্রী ও প্রধানমন্ত্রীকে৷