আগরতলা: বেকারত্ব দূর করতে প্রধানমন্ত্রী ও মুখ্যমন্ত্রীদের চমকপ্রদ বয়ানবাজি চলছেই৷ কেউ বলেছেন তেলেভাজা শিল্প৷ কারোর কাছে চপ ভাজা শিল্প৷ নরেন্দ্র মোদী ও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দেখানো সেই পথ ধরেই এবার কর্মসংস্থান ও বিরাট অংকের রোজগারের স্বপ্ন দেখিয়ে বেকারদের পানের দোকান খুলতে পরামর্শ দিলেন ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব৷

আরও পড়ুন: ‘ঐশ্বর্যা ফর্সা বলেই বেশি পছন্দ বিপ্লবের’

সদ্য রাজ্যে ২৫ বছরের বাম শাসনের অবসান ঘটিয়ে বিপ্লববাবুর নেতৃত্বে ক্ষমতায় এসেছে বিজেপি-আইপিএফটি জোট৷ নতুন মুখ্যমন্ত্রী হয়েই একের পর এক চমকপ্রদ মন্তব্য করছেন ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী৷ আগরতলায় এক অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, বেকাররা সরকারি চাকরির সন্ধানে সময় ব্যয় না করে পানের দোকান খুললেই রোজগার বাড়ত৷ ব্যাংকে কম করেও ৫ লাখ টাকা জমা থাকত৷ এমনই নিদান দিলেন ত্রিপুরার নতুন মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব৷

বিভিন্ন সংবাদ সংস্থা জানাচ্ছে, মুখ্যমন্ত্রী রাজ্যের বেকারদের জন্য সুখবর শোনাচ্ছিলেন৷ তখন তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী মুদ্রা যোজনা পরিকল্পনায় কর্মসংস্থানের জন্য ঋণ দানের সুবিধা দিচ্ছে কেন্দ্র সরকার৷ এর মাধ্যমে যে কেউ সম্মানজনক পেশা বেছে নিয়ে জীবন গড়ে তুলতে পারেন৷

আরও পড়ুন: মহাভারতের সময়েও ছিল ইন্টারনেট-স্যাটেলাইট যোগাযোগ: মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব

অনুষ্ঠানে মুখ্যমন্ত্রী জানান, প্রধানমন্ত্রী মুদ্রা যোজনার অন্তর্গত কোনও বেকারকে ৭৫ হাজার টাকা পর্যন্ত ঋণ দেওয়া হয়৷ নামমাত্র সুদে এই ঋণ নিয়ে যে কেউ মাসের শেষে কম করে ২৫ হাজার টাকা পর্যন্ত উপার্যন করতে পারেন৷ এর পরেই বিগত বাম শাসনকে কটাক্ষ করে কিন্তু ত্রিপুরায় গত ২৫ বছরের উদাহরণ টেনে আনেন মুখ্যমন্ত্রী৷ তাঁর দাবি, গত সরকারের আমলে এমন মনোভাব তৈরি করে দেওয়া হয়েছিল যে স্নাতক যুব সম্প্রদায় যদি চাষ কাজ করেন, বা পোলট্রি ফার্ম করেন তাহলে তাঁর সম্মানহানি হবে৷ এটা একধরণের ভুল চিন্তা৷

মুখ্যমন্ত্রী হয়েই একের পর এক বয়ানেও চমক তৈরি করেছেন বিপ্লব দেব৷ তিনিই জানিয়েছেন, মহাভারতের যুগে ইন্টারনেট ছিল৷ সিভিল সার্ভিস ও সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিংকে একসঙ্গে জুড়ে দিয়েছেন চমকপ্রদ তথ্য৷ শুধু তাই নয়, বিশ্বসুন্দরী মহিলার ত্বকের রঙ নিয়েও দিয়েছেন বিশেষজ্ঞ কমেন্ট৷ এসব নিয়ে বিতর্ক চলছে দেশজুড়ে৷ তারই মাঝে মুখ্যমন্ত্রীর নিদান, চাকরির সন্ধানে সময় না নষ্ট করে কর্মপ্রার্থীরা পানের দোকান খুলে নিলেই ব্যাংক ব্যালেন্স বাড়ে৷

প্রশ্ন অনেক-এর বিশেষ পর্ব 'দশভূজা'য় মুখোমুখি ঝুলন গোস্বামী।