নর্থ ক্যারোলিনা: সিঙ্গলসে নামেননি৷ ফেড কাপে দেশের হয়ে নিয়ম রক্ষার ডাবলস ম্যাচে কোর্টে নেমেছিলেন সেরেনা উইলিয়ামস৷ দীর্ঘ এক বছরের বিরতির পর কোর্টে ফেরার মুহূর্তটা জয় দিয়ে স্মরণীয় করে রাখতে পারলেন না৷ তবে ২৩টি গ্র্যান্ড স্ল্যাম সিঙ্গলস জয়ী উইলিয়ামস জানালেন, সঠিক পথেই এগিয়ে চলেছে তাঁর ডব্লিউটিএ সার্কিটে ফেরার প্রস্তুতি৷

আরও পড়ুন: জন সচেতনতায় ব্যাট ধরলেন সচিন

নেদারল্যান্ডসের বিরুদ্ধে ভেনাস উইলিয়ামস দু’টি সিঙ্গলস ও কোকো ভ্যান্দেওয়েঘে একটি সিঙ্গলস জিতে নেওয়ায় টাই জয় নিশ্চিত হয়ে যায় আমেরিকার৷ ফলে চতুর্থ সিঙ্গলস রাবার খেলতে নামেননি ভ্যান্দেওয়েঘে৷ সন্তানের জন্মের পর সেরেনার অফিসিয়ালি কোর্টে ফেরার প্রসঙ্গ থাকায়, নিয়ম রক্ষার ডাবলস খেলা হয় সূচি অনুযায়ী৷

আরও পড়ুন: ‘হার কার ভি দিল জিতা জাতা হ্যায়’, কীভাবে? শেখালেন কোহলি

দিদি ভেনাসকে সঙ্গী করেই লেসলি কারখোভ ও ডেমি শুরসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে নেমেছিলেন সেরেনা৷ ভেনাস-সেরেনা জুটির দখলে যেখানে ২২টি ডাবলস খেতাব রয়েছে, সেখানে এই প্রথমবার জুটি বঁধে কোর্টে নামলেন দুই ডাচ তরুণি৷ শুরুতেই বাজিমাৎ করেন লেসলি-ডেমি জুটি৷ অভিজ্ঞ ভেনাস-সেরেনা জুটিকে ৬-২, ৬-৩ সেটে হারিয়ে দেন তাঁরা৷

আরও পড়ুন: ‘পিস্তল রানির’ চোখ বিশ্বজয়ে

কোর্টে সেরেনার নড়াচড়া ছিল অত্যন্ত স্লথ৷ শট বাছাইয়েও একঝাঁক ভুল ভ্রান্তি চোখে পড়েছে তাঁর৷ তা সত্ত্বেও সেরেনা মনে করেন, তিনি যতটা ভেবেছিলেন, তার থেকও ভাল অবস্থায় রয়েছেন৷ তাঁর কথায়, ‘দীর্ঘ বিরতির পর এটাই আমার প্রথম অফিসিয়াল ম্যাচ৷ যতটা খারাপ অবস্থায় নিজেকে দেখব ভেবেছিলাম, তার থেকে অনেক ভাল পরিস্থিতিতে রয়েছি৷ আশা করিনি সার্ভিসে এতটা জোর থাকবে৷ আসলে কোর্টে নামার আগে আমার কোনও প্রত্যাশা ছিল না৷ তাই মনে হচ্ছে সঠিক দিকেই এগচ্ছে প্রস্তুতি৷’

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

জীবে প্রেম কি আদৌ থাকছে? কথা বলবেন বন্যপ্রাণ বিশেষজ্ঞ অর্ক সরকার I।