মুম্বই: ফের সূচক উঠে সেনসেক্স ও নিফটি নতুন উচ্চতায় দিন শেষ করল। যা আশঙ্কা করা হয়েছিল তার তুলনায় এশিয়ার তৃতীয় বৃহত্তম অর্থনীতি সেপ্টেম্বর মাসের শেষ ত্রৈমাসিকে সংকোচন কম হওয়ার পর শেয়ারবাজারের এমন দশা দেখা গেল। তাছাড়া করোনা ভ্যাকসিন নিয়ে আশা জাগায় ইতিবাচক প্রভাব পড়েছে এ দেশের শেয়ারবাজারে। আর গোটা নভেম্বর মাসের বাজার উঠেছে ১১ শতাংশ। এদিন সেনসেক্স ৫০৫.৭২ পয়েন্টে উঠে অবস্থান করছে ৪৪,৬৫৫.৪৪ পয়েন্টে এবং নিফটি ১.০৮ শতাংশ উঠে দিনের শেষে অবস্থান করছে ১৩,১০৯.০৫ পয়েন্টে।

গত শুক্রবার প্রকাশিত তথ্য জানিয়েছিল ভারতের অর্থনীতি সেপ্টেম্বর ত্রৈমাসিক সংকোচন হয়েছে ৭.৫ শতাংশ যেখানে আশঙ্কা করা হচ্ছিল এই সংকোচন হবে ৮.৮ শতাংশ। তারপর এদিন বাজার খোলার পর এদিন শেয়ার বাজার খোলার প্রথম থেকেই বেশ চাঙ্গা ছিল।

তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থা ইনফোসিস এদিন বেড়েছে ৩.৩ শতাংশ আর বেসরকারি ব্যাংক আইসিআইসিআই ব্যাংকের বৃদ্ধি হয়েছে। রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজের বৃদ্ধি হয়েছে ১.৩ শতাংশ। সেনসেক্সে থাকা সান ফার্মা ইন্ডাসইন্ড ব্যাংক এবং টেক মহিন্দ্রা শেয়ারের দাম বেড়েছে ৪-৫ শতাংশ।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

কোনগুলো শিশু নির্যাতন এবং কিভাবে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো যায়। জানাচ্ছেন শিশু অধিকার বিশেষজ্ঞ সত্য গোপাল দে।