মুম্বই: গত কয়েকদিন ধরে বাজার ওঠার পর বৃহস্পতিবার শেয়ারবাজারের সূচক অনেকটাই নেমে এলো। এদিন বিএসই সেনসেক্স প্রায় ৬০০ পয়েন্ট নেমে এসেছে এবং নিফটি ১২,৮০০ পয়েন্টের তলায়। বিশেষত্ব ব্যাংক এবং আর্থিক সংস্থার শেয়ারের দাম পড়ে যাওয়ায় শেয়ার সূচকের এই অবস্থা।

দিনের শেষে দিনসেনসেক্স ৫৮০ পয়েন্ট বা ১.৩১ শতাংশ নেমে অবস্থান করছে ৪৩,৬০০ পয়েন্ট । অন্যদিকে নিফটি ১৬৭ পয়েন্ট বা ১.২৯ শতাংশ নেমে অবস্থান করছে ১২,৭৭২ পয়েন্টে।

এসবিআই, আইসিআইসিআই ব্যাংক, অ্যাক্সিস ব্যাংক আল্ট্রা সেমকো, বাজাজ ফিনান্স, এইচডিএফসি ব্যাংক এবং ভারতী এয়ারটেল হল এদিন সেনসেক্সের প্রধান প্রধান শেয়ার যেগুলির দাম কমেছে ৪.৮৮ শতাংশ পর্যন্ত। অন্যদিকে রয়েছে পাওয়ার গ্রিড, আইটিসি, এনটিপিসি, টাটা স্টিল, টিসিএস, টাইটান হল সেইসব শেয়ার যাদের দাম ২.৭৮ শতাংশ পর্যন্ত বেড়েছে।

এন এস ই সাব প্লাটফর্মে নিফটি ব্যাংক, পিএসইউ ব্যাংক, প্রাইভেট ব্যাংক এবং ফিনান্সিয়াল সার্ভিসেস নেমেছে ৩.১০ শতাংশ পর্যন্ত। বিশ্বের শেয়ারবাজারও ছিল নিম্নমুখী। যেহেতু করোনা ফের মাথাচাড়া দিচ্ছে ইউএস এবং ইউরোপে । নিউ ইয়র্কে স্কুল বন্ধ করার সিদ্ধান্ত বাজারে নেতিবাচক প্রভাব ফেলেছে।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।