নয়াদিল্লি: সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর তদন্ত ঘিরে মুম্বই ও বিহার পুলিশের মধ্যে দ্বন্দ্ব লেগেই রয়েছে। মুম্বই পুলিশ এই তদন্ত শুরু করলেও কিছুদিন আগে বিহার পুলিশও এই মামলায় হস্তক্ষেপ করেছে। আর তার পর থেকেও দুই রাজ্যের পুলিশের মধ্যে লেগেই রয়েছে বিবাদ। এবার সেই বিষয় মন্তব্য করল সুপ্রিম কোর্ট।

রবিবার সুশান্ত সিং রাজপুত মৃত্যু মামলার তদন্তে মুম্বই গিয়েছিলেন পাটনা সেন্ট্রালের এসপি বিনয় তিওয়ারি। বৃহন্মুম্বই পৌরসভার বিরুদ্ধে অভিযোগ, সেদিনই ‘জোর করে’ বিনয় তিওয়ারিকে কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে। এমনটাই জানিয়েছেন বিহার পুলিশের ডিজি গুপ্তেশ্বর পাণ্ডে। সুশান্তের মামলায় যেখানে বেশ কিছু জিনিসের উপর নজর দেওয়া জরুরি, তখন “এই ঘটনা মোটেই ভালো বার্তা দেয় না”, এমনই জানানো হয়েছে শীর্ষ আদালতের পক্ষ থেকে।

সুপ্রিম কোর্ট বলছে, পেশাদারিত্বের দিক থেকে মুম্বই পুলিশের ভালো রেকর্ড থাকলেও, বিহার পুলিশকে কোয়ারেন্টাইনে পাঠানোর ঘটনা মোটেই ভালো বার্তা দেয় না।

প্রসঙ্গত, সুশান্তের বাবা কে কে সিং অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে রাজীব নগর থানায় এফআইআর দায়ের করেন। তার পরেই বিহার পুলিশ তদন্তে নামে। এরই মধ্যে রিয়াও সুপ্রিম কোর্টের কাছে আবেদন করেছিল ঘটনার তদন্ত বিহার থেকে মুম্বইয়ে স্থানান্তরিত করা হোক। এরও শুনানি হওয়ার কথা ছিল আজ বুধবার। সুপ্রিম কোর্ট আগামী তিন দিনের মধ্যে সমস্ত পার্টিকে এর উত্তর জানাতে বলেছে। তার উপর ভিত্তির করে শুনানি হবে এক সপ্তাহ পরে।

উল্লেখ্য, ৫ অগাস্ট সুশান্ত সিং রাজপুতের তদন্ত ভার তুলে দেওয়া হল সিবিআই-এর হাতে। মঙ্গলবার কেন্দ্রের কাছে বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার আবেদন করেছিলেন, এই তদন্ত সিবিআই এর হাতে তুলে দেওয়া হোক। তার পরেই সুশান্ত মামলাটি তুলে দেওয়া হল সিবিআই এর হাতে। সুপ্রিম কোর্টকে এমনই জানালো কেন্দ্র।

তুষার মেহতা জানিয়েছেন বিহার সরকার আবেদন করার পর তা কেন্দ্র গ্রহণ করে এবং এই তদন্তটি যাতে সিবিআই এর দ্বারাই হয় সেই ব্যবস্থা নেয়। উচ্চপদস্থ আইনজীবী মুকুল রোহাতগি জানিয়েছেন এই সিদ্ধান্তকে তাঁরা স্বাগত জানাচ্ছেন।

পপ্রশ্ন অনেক: নবম পর্ব

Tree-bute: আমফানের তাণ্ডবের পর কলকাতা শহরে শতাধিক গাছ বাঁচাল যারা