গান্ধীনগর: ক্ষমতায় ফিরলে আরও কড়া করা হবে রাষ্ট্রদ্রোহ আইন। নির্বাচনী জনসভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে এই কথা জানালেন মোদী সরকারের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং।

শুক্রবার নির্বাচনি প্রচারে গুজরাতের বাতোর এলাকায় হাজির ছিলেন রাজনাথ। সেখানেই কংগ্রেসকে আক্রমণ করতে গিয়ে রাষ্ট্রদ্রোহ আইনের কথা বলেন তিনি। একই সঙ্গে ওই আইন সংশোধন করার কথাও বলেছেন তিনি।

কেন্দ্রে এনডিএ সরকার আসার পরে রাষত্রদ্রোহ আইনের অপব্যবহার করা হয়েছে। এমন অভিযগ করে বিরোধী শিবির। নির্বাচনী ইস্তেহারে কংগ্রেস রাষ্ট্রদ্রোহ আইন শিথিল করার কথা বলেছে। বাকস্বাধিনতার ক্ষেত্রে রাষ্ট্রদ্রোহ আইন বিলোপ করার কথাও বলা হয়েছে কংগ্রেসের ইস্তেহারে। যা নিয়ে ভারতের জাতীয় কংগ্রেসকে কটাক্ষ করতে শুরু করেছে বিজেপি। বিভিন্ন জনসভায় তা শোনা গিয়েছে বিজেপি নেতাদের মুখে।

সেই একই কায়দায় ওই দিন কংগ্রেসকে আক্রমন করেছেন রাজনাথ সিং। তিনি বলেছেন, “যদি কেউ ভারতকে ভাঙার চেষ্টা করে তাহলে কী তাকে ক্ষমা করা যায়?” একই সঙ্গে তিনি আরও বলেন, “ওরা বলছে যে ক্ষমতায় এলে রাষ্ট্রদ্রোহ আইন উঠিয়ে দেবে। এটা কিসের ইঙ্গিত?” এরপরেই তিনি বলেন, “যদি ফের আমাদের সরকার কেন্দ্রে গঠিত হয় তাহলে রাষ্ট্রদ্রোহ আইন আরও কড়া করার ব্যবস্থা করা হবে।”

এর আগে চলতি মাসের তিন তারিখে এই একই বিষয় নিয়ে কংগ্রেসকে আক্রমণ করেছিলেন উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। তিনি বলেন, “কংগ্রেস নির্বাচনী ইস্তেহারে রাষ্ট্রদ্রোহ আইন বিলোপ করার কথা বলেছে। এটা খুবই লজ্জাজনক। এই আইন সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে ব্যবহার করা হয়।”