ফাইল ছবি

নয়াদিল্লি: অজ্ঞাত পরিচয়ের এক ব্যাক্তির বিরুদ্ধে দেশদ্রোহিতার মামলা দায়ের করল দিল্লি পুলিশ। স্বাধীনতা দিবসের আগে একাধিক মোবাইল ব্যবহারকারিদের ফোন করে উত্তেজক মন্তব্য করার ভিত্তিতেই এমন মামলা দায়ের করা হয়েছে বলেই জানা গিয়েছে।

দিল্লি এবং পার্শ্ববর্তী অঞ্চলের মোবাইল ব্যবহারকারিদের থেকে একই অভিযোগ পরপর আসতে থাকলে তা সকলের চোখে পড়ে। সকলকেই ভয়েস ওভার ইন্টারনেট প্রটোকলের মাধ্যমে এই ফোনগুলি করা হয়েছে। পুলিশ ফোন কলের সারমর্ম অডিও হিসেবে শেয়ার করেছেন।

অডিওটি শোনা যাচ্ছে, ভারত সরকারকে দোষারোপ করে বলা হচ্ছে যে এরা ‘হিন্দু রাষ্ট্র’ গড়ার চেষ্টা করছে। সংখ্যালঘুদের অনুরোধ জানানও হচ্ছে যাতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে পতাকা উত্তোলন করতে না দেওয়া হয়, এমনটাই জানিয়েছে পুলিশ। এছাড়াও আলাদা দেশের দাবি জানাতে অনুরোধ করতে শোনা গিয়েছে ঐ ব্যাক্তিকে।

ভারতীয় দন্ডবিধির ১২৪এ ধারা অনুযায়ী দেশদ্রোহীতা এবং অন্যান্য ধারায় দিল্লি পুলিশ এফআইআর দায়ের করেছে, এমনটাই জানিয়েছেন উচ্চপদস্থ এক পুলিশ অফিসার।

প্রসঙ্গত, নাশকতার ছক নয়। তার চেয়েও ভয়াবহ পরিস্থিতি তৈরি করতে চাইছে পাকিস্তান। দেশের গুপ্তচর সংস্থা আইএসআইয়ের নতুন পরিকল্পনা ভারতের অভ্যন্তরে সাম্প্রদায়িক হিংসার পরিস্থিতি তৈরি করা। এমনই জানতে পেরেছেন গোয়েন্দারা। উস্কানিমূলক মন্তব্য করে হিংসার পরিস্থিতি তৈরি করতে সচেষ্ট পাকিস্তান।

গোয়েন্দা রিপোর্ট জানাচ্ছে ভারতের শান্তিপূর্ণ আবহে অশান্তির বীজ বুনতে চাইছে পাক গুপ্তচর সংস্থা। ভয়েস ওভার ইন্টারনেট প্রোটোকল কলের মাধ্যমে লখনউতে বিভিন্ন ধর্মের মানুষের মধ্যে উস্কানিমূলক বার্তা ছড়ানোর প্ল্যান করেছে তারা বলে সূত্রের খবর।

রাম মন্দিরের ভূমিপুজোকে কেন্দ্র করে তারা এই ছক কষেছে। গোয়েন্দারা জানিয়েছেন দুবাই ও অস্ট্রেলিয়ার নম্বর ব্যবহার করে এই কাজ করছে আইএসআই।

গোয়েন্দা সূত্রে খবর ওই নম্বর থেকে ফোন আসলে কিছু ব্যক্তিকে কথা বলতে শোনা যাচ্ছে, যারা রাম মন্দিরের ভূমিপুজো আসলে সংখ্যালঘুদের সম্মানহানি করছে ও গুরুত্ব কমিয়ে দিচ্ছে বলে জানাচ্ছে। এই ধরণের উস্কানিমূলক কথাই সাম্প্রদায়িক হিংসা তৈরি করতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন গোয়েন্দারা।

১৫ অগাষ্ট লালকেল্লায় স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠানে নাশকতা হতে পারে, এরকমও ইঙ্গিত দেওয়া হচ্ছে ওই ফোন কলে। এর আগে, ১৫ই অগাষ্ট অর্থাৎ স্বাধীনতা দিবসের দিন নাশকতা হতে পারে নয়াদিল্লিতে, জানিয়ে ছিলেন গোয়েন্দারা। নিরাপত্তা বাড়ানো হয় দিল্লির। জম্মু কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা তুলে নেওয়ার জেরেই এই নাশকতা চালানো হতে পারে বলে খবর।

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও