দুবাই: পঞ্চম দেশ হিসেবে যোগ্যতাঅর্জন পর্ব থেকে টি-২০ বিশ্বকাপের টিকিট অর্জন করল স্কটল্যান্ড। পাপুয়া নিউ গিনি, আয়ারল্যান্ড, নেদারল্যান্ড ও নামিবিয়া আগামী বছর অস্ট্রেলিয়ার টিকিট নিশ্চিত করেছিল আগেই। বুধবার প্লে-অফের পঞ্চম ম্যাচে সংযুক্ত আরব আমিরশাহিকে হারিয়ে টি-২০ বিশ্বকাপের ছাড়পত্র আদায় করে নিল স্কটল্যান্ড। দুবাইয়ের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে এদিন আয়োজক দেশকে ৯০ রানে হারাল পরাজিত করল তাঁরা।

টস জিতে দুবাইয়ে এদিন প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন স্কটল্যান্ড দলনায়ক কাইল কোয়েটজার। ওপেনার জর্জ মুন্সির ৬৫ রান ও রিচি বেরিংটনের ‘ক্যামিও’ ৪৮ রানের ইনিংসে ভর করে আরব আমিরশাহিকে ১৯৯ রানের লক্ষ্যমাত্রা ছুঁড়ে দেয় স্কটিশরা। মুন্সির ৪৩ বলে ৬৫ রানের ইনিংসে ছিল ২টি চার ও ৫টি ছয়। অন্যদিকে ১৮ বলে বেরিংটনের ৪৮ রানের বিস্ফোরক ইনিংস সাজানো ছিল ৪টি চার ও ৩টি ছয়ে। এছাড়াও ব্যাট হাতে অধিনায়ক কোয়েটজারের ৪৮, ম্যাকলিয়ডের ২৫ রান স্কটল্যান্ডকে বড় রান গড়তে সাহায্য করে।

জবাবে রান তাড়া করতে নেমে শুরু থেকেই স্কটিশ বোলারদের সামনে অসহায় দেখায় আমিরশাহির ব্যাটসম্যানদের। ১২ রানের মধ্যে ২ উইকেট খুঁইয়ে ব্যাকফুটে চলে যায় আয়োজকরা। রামিজ শাহজাদ ও দারিয়াস ডি’সিলভা জুটি কিছুটা টেনে তোলার চেষ্টা করলেও খুব বেশি সফল হননি তাঁরা। তৃতীয় উইকেটে সর্বোচ্চ ৪৩ রানের অবদান রাখেন এই দুই ব্যাটসম্যান। ২৮ বলে ৩৪ রান করে শাহজাদ প্যাভিলিয়নে ফিরতেই ধস নামে ইউএই ব্যাটিং অর্ডারে। তিনজন ব্যাটসম্যান ছাড়া বাকিরা কেউই দু’অঙ্কের রানে পৌঁছতে পারেননি।

১৮.৩ ওভারে মাত্র ১০৮ রানেই গুটিয়ে যায় আয়োজকদের ইনিংস। ১৯ বলে ১৯ রান করেন ডি’সিলভা। ১৬ বলে ২০ রান আসে মহম্মদ উসমানের ব্যাট থেকে। স্কটল্যান্ডের হয়ে বল হাতে সবচেয়ে সফল শাফিয়ান শরিফ ও মার্ক ওয়াট। দু’জনেই নেন ৩টি করে উইকেট। দলের ৯০ রানের বিরাট জয়ে অবদান রাখেন বাকি বোলাররাও। বাকি চার বোলারের প্রত্যেকেই একটি করে উইকেট সংগ্রহ করেন। আগামী বছর বিশ্বকাপের ছাড়পত্র জোগাড় করার পাশাপাশি টি-২০’তে এদিন তাঁদের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ব্যবধানে জয় পেল স্কটিশরা।