লন্ডন: এবার আটলান্টিক মহাসাগরের নীচে একটি অত্যন্ত বিরল ‘বুমেরাং ভূমিকম্প’ চিহ্নিত করলেন বিজ্ঞানীরা।

লন্ডনের সাদাম্পটন ইউনিভার্সিটি এবং ইম্পেরিয়াল কলেজের বিজ্ঞানীদের নেতৃত্বে একটি দল ২৯ শে আগস্ট, ২০১৬ সালে ৭.১ ম্যাগনিটিউডের এমন একটি বুমেরাং ভূমিকম্পের মাত্রা সফল ভাবে রেকর্ড করে। সম্প্রতি গবেষণাটি নেচার জিওসায়েন্স জার্নালে প্রকাশিত হয়েছে।

এক্ষেত্রে বিজ্ঞানীদের বক্তব্য, বুমেরাং ভূমিকম্পে যে গতিতে তরঙ্গ আসে, তার থেকে অনেক বেশি দ্রুত গতিতে ভূমিকম্পের তরঙ্গ উৎসমুখে ফিরে যায়। ফলে ক্ষয়ক্ষতি বিশাল হতে পারে। আবার এই বুমেরাং ভূমিকম্পের জেরে ভূমিকম্পের আগাম সতর্কতা জারি করা যেতে পারে বলে মনে করছে বিজ্ঞানী মহল।

আরও পড়ুন – বাঘের সঙ্গে সহবাস, রান্না করতে সুন্দরবনের মৎস্যজীবীদের দেওয়া হল সিলিন্ডার-ওভেন

এই ভূমিকম্প জলের তলায় হয়েছে। গবেষকদের বক্তব্য, যদি মাটিতে একই ধরণের ভূমিকম্প ঘটে, তবে এরফলে ভূপৃষ্ঠ মারাত্মক ভাবে কেঁপে উঠবে এবং ক্ষতিও হবে অনেক বেশি।

বিজ্ঞানীদের বক্তব্য, আরও কয়েকটি বুমেরাং ভূমিকম্প -র খোঁজ এই সম্পর্কিত গবেষণাকে আরও এগিয়ে নিয়ে যেতে সহায়তা করবে। তাতে ভবিষ্যৎ ভূ-কম্পন সম্পর্কে পূর্বাভাস দেওয়া যেতে পারে।

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও