স্টাফ রিপোর্টার, হাওড়া: ডোমজুড় শুরু হয়েছে বিজ্ঞান মেলা। ২০১৫ সালে শুরু হওয়া এই বিজ্ঞান মেলা ২০২০ সালে ষষ্ঠ বছরে পড়ল। বেগরী গার্লস হাইস্কুলে ২৩ শে জানুয়ারীর পূর্ণ লগ্নে এক বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা দিয়ে শুরু হয় এই বিজ্ঞান মেলা। আজ রবিবার ২৬ জানুয়ারী মেলার শেষ দিন।

উদ্বোধন লগ্নে উপস্থিত ছিলেন পশ্চিমবঙ্গ বনমন্ত্রী রাজীব ব্যানার্জি, ডোমজুড় বিডিও রাজা ভৌমিক ,শিক্ষক শ্যামসুন্দর দত্ত ও আরো অন্যান্য বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ। এই চারদিন সকাল থেকে থাকছে স্কুলের বিভিন্ন ক্লাশের ছেলে মেয়েদের দ্বারা বিজ্ঞান ভিত্তিক প্রদর্শনী, কু্ইজ প্রতিযোগিতা, তথ সহ চলবে বিজ্ঞান, গবেষনা, চিকিৎসা ভিত্তিক আলোচনা ও সচেতনতা সভা।

“আগামী” নামক ডোমজুড়ের পরিবেশ প্রেমী সংগঠন এই বিজ্ঞান মেলা তে সক্রিয় অংশগ্রহণ করছে। ডোমজুড় বিজ্ঞান মেলা সম্পাদক ডঃ মনোতোষ খাঁড়া মহাশয় এক সুন্দর বক্তব্য রাখেন ভারতের প্রখ্যাত বিজ্ঞানী ডঃ শম্ভুনাথ দে মহাশয়ের মানব জীবনে অবদান সম্পর্কে ও তার জীবনের কিছু অজানা লড়াইয়ের ও যন্ত্রনার তথ্য নিয়ে। ডঃ মনোতোষ বাবু সকলকে আমন্ত্রণ করেন এই চারদিন বিজ্ঞান মেলার অনুষ্ঠানে, উল্লেখ্য ডোমজুড় বিজ্ঞান মেলা ও তদসংলগ্ন সকল প্রদর্শনী অনুষ্ঠানে সকল মানুষের অবাধ প্রবেশ।

গত বছর এই মেলা শুরু হয়েছিল ২৪ জানুয়ারি শেষ হয়েছিল ২৭ জানুয়ারি। তার থেকে এই বছর মেলা এক দিন আগে শুরু হয়। শেষও হচ্ছে এক দিন আগেই।

বছর দুয়েক আগে এই বিজ্ঞান মেলায় মডেল প্রতিযোগিতার থিম হিসেবে রাখা হয়েছিল মহাকাশ বিজ্ঞান, কৃষি বিজ্ঞান ও চিকিৎসা বিজ্ঞান। এদিকে বিজ্ঞানী মেঘনাদ সাহার নামে বিজ্ঞান মেলা শুরু হয়েছে কলকাতাতেও। গড়িয়াহাটের ত্রিকোণ পার্কে চলছে এই মেলা। আজ ২৬ জানুয়ারি মেলার শেষ দিন। প্রতিদিন দুপুর ২টো থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত চলছে এই মেলা। এই মেলার আয়োজন করেছে পশ্চিমবঙ্গ বিজ্ঞান মঞ্চের কলকাতা জেলা কমিটি। মেলায় থাকছে স্কুল পড়ুয়াদের, বিজ্ঞান মডেল প্রদর্শনী, আলোচনাচক্র ও বিজ্ঞানবিষয়ক নানা অনুষ্ঠান। বৃহস্পতিবার এই মেলা উপলক্ষে একটি শোভাযাত্রাও বের হয়। মেলার উদ্বোধন করেন অচিরাচরিত শক্তি বিশেষজ্ঞ বিজ্ঞানী শান্তিপদ গণচৌধুরী।