নয়াদিল্লি: দেশের সর্ববৃহৎ ব্যাঙ্ক স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার(State Bank of India) গ্রাহক সংখ্যা কম নয়। ব্যাঙ্কটি তার গ্রাহকদের সুবিধার কথা মাথায় রেখে অনেক সুবিধা দিয়ে থাকে। এবার স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া তার গ্রাহকদের জন্য বিশেষ সুবিধা নিয়ে এল। গ্রাহকরা এবার ঘরে বসে অ্যাকাউন্টের সঙ্গে ফোন নম্বর লিঙ্ক করতে পারবে। করোনার মহামারী এবং লকডাউনের এই সময়ে, এই সুবিধাটি ব্যাঙ্কের গ্রাহকদের জন্য উপহারের চেয়ে কম নয়। স্টেট বাঙ্কের অনলাইন সুবিধার মাধ্যমে গ্রাহকরা শাখায় না গিয়েই নিজের অ্যাকাউন্টে মোবাইল নম্বর আপডেট করতে পারবে।

চলুন জেনে নেওয়া যাক কীভাবে মোবাইল নম্বর আপডেট করবেন

মোবাইল নম্বর আপডেট করার জন্যে ডেবিট কার্ড বা ক্রেডিট কার্ডের পাশাপাশি একটি সক্রিয় মোবাইল নম্বর থাকা জরুরি। ওটিপির মাধ্যমে মোবাইল নম্বর রেজিস্টার্ড করা যাবে।

১. মোবাইল নম্বর ব্যাঙ্কের অ্যাকাউন্টের সঙ্গে রেজিস্টার্ড করার জন্যে প্রথমে SBI-এর অফিসিয়াল ওয়েসাইটে লগইন করতে হবে।
২. তারপর বাম দিকের নেভিগেশন মেনু থেকে ‘My Accounts and Profile’ এ ক্লিক করতে হবে।
৩. ড্রপ ডাউন মেনু থেকে ‘Profile’ অপশনে ক্লিক করতে হবে।
৪. Personal Details বা Mobile এ ক্লিক করতে হবে।
৫. তারপর প্রোফাইলের পাসওয়ার্ড দিয়ে সাবমিট অপশনে ক্লিক করতে হবে।
৬. এরপর Change Mobile Number-Domestic only (Through OTP/ATM/Contact Centre)-এ ক্লিক করতে হবে।
৭. এবার একটি পেজ খুলবে। সেখানে ‘Personal Details-Mobile Number Update’ এর একটি অপশন স্ক্রিনে দেখা যাবে।
৮. সেখানে নিজের মোবাইল নম্বরটি দিয়ে পূরণ করতে হবে। তারপরে আরও একবার মোবাইল নম্বরটি দিতে হবে। তারপর সাবমিট অপশনে ক্লিক করতে হবে।
৯. তারপর স্ক্রিনে একটি পপ আপ মেসেজ আসবে। সেখানে ‘Verify and confirm your mobile number xxxxxxxxxx’ এ ক্লিক করতে হবে।
১০. তারপর “OK” বটনে ক্লিক করতে হবে।
১১. এরপরে, স্ক্রিনে তিনটি বিকল্প আসবে – উভয়ই মোবাইল নম্বরে প্রাপ্ত ওটিপি-র মাধ্যমে, এটিএমের মাধ্যমে ইন্টারনেট ব্যাংকিংয়ের অনুরোধ, এবং যোগাযোগের মাধ্যমে।
১২. গ্রাহকরা দুটি নম্বরে প্রাপ্ত ওটিপি-র মাধ্যমে ঘরে বসে মোবাইল নম্বরটি পরিবর্তন করতে পারেন। এই প্রক্রিয়ার মূল বিষয় হল আপনার মোবাইল নম্বরটি সক্রিয় থাকতে হবে।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.