কলকাতা: করোনা আক্রান্ত স্টেট ব্যাংকের কলকাতার এক কর্মী। শুক্রবারই তাই অফিসের একাংশ বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। আগামী ১১ মে পর্যন্ত বন্ধ থাকবে সেই অফিস।

কলকাতার লোকাল হেড অফিসের একটি বিভাগে কাজ করতেন ওই ব্যক্তি। গত ৮-১০ দিন ধরে অফিসে আসছিলেন না তিনি। এরপরই জানা যায় মারণ ভাইরাসে আক্রান্ত ওই কর্মী। ওই কর্মী হেড অফিসের ই-উইং-এ লায়াবিলিটি সেন্ট্রালাইজড প্রসেসিং সেন্টারে কাজ করতেন।

ঘটনাটি জানার পরই পুরো অফিস স্যানিটাইজ করা হয়েছে। ওই সেকশন বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে ১১ মে পর্যন্ত। ওই কর্মী প্রাইভেট হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। কর্তৃপক্ষের তরফে জানানো হয়েছে, অর্গানাইজেশনের সুরক্ষার কথা ভেবেই এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

স্টেট ব্যাংকের আরও এক কর্মী বিদেশযাত্রার পর করোনা ধরা পড়ে। তিনি আপাতত সুস্থ আছেন।

বিগত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে করোনা আক্রান্ত হয়ে আরও সাতজনের মৃত্যু হয়েছে রাজ্যে। একই সময়ে নতুন করে আরও ৯২ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন বলে রাজ্যের স্বাস্থ্য দফতর জানিয়েছেন। ফলে এই মুহূর্তে রাজ্যের সক্রিয় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১,১০১ জন।

এখনও পর্যন্ত মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হল ১,৫৪৮। এখনও পর্যন্ত ২৯৬ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গিয়েছেন। বৃহস্পতিবার সান্ধ্য বুলেটিনে এমনটাই স্বাস্থ্য দফতরের তরফে জানানো হয়েছে। যে ভাবে করোনা সংক্রমণের হার বাড়ছে তা যথেষ্ট উদ্বেগের বলেই মনে করা হচ্ছে।

প্রশ্ন অনেক: দ্বিতীয় পর্ব