নয়াদিল্লিঃ  নিয়মে আরও বেশ কিছু রদবদল আনল এসবিআই! নয়া এই সিদ্ধান্তে গ্রাহকদের উপর আরও চাপ বাড়ল।

দেশের সবচেয়ে বড় রাষ্ট্রায়ত্ত এই ব্যাংকের নয়া নিয়ম মোতাবেক, দীর্ঘদিন পর্যন্ত গ্রাহকদের বছরে একেবারে বিনামূল্যে ৫০ পাতার চেক বই দেওয়া হত।  এরপরে বাড়তি চেক বই লাগলে তা ব্যাংক থেকে কিনতে হত।  কিন্তু এবার থেকে বিনামূল্যে চেক দেওয়া বন্ধ করল ব্যাংক।  ১ জুন থেকেই নয়া এই নির্দেশিকা জারি করেছে ব্যাংক।  নয়া নির্দেশ মোতাবেক,  প্রতিটি চেকের জন্য আপনার খরচ হবে ৩ টাকা।  এবং তার সঙ্গে যুক্ত হবে সার্ভিস ট্যাক্স।  মিলবে ১০, ২৫ ও ৫০ পাতার চেক বই।  ১০ পাতার চেক বইয়ের দাম ৩০ টাকা।  সঙ্গে লাগবে সার্ভিস ট্যাক্স।  ২৫ পাতার চেক বইয়ের দাম ৭৫ টাকা।  যুক্ত হবে সার্ভিস ট্যাক্স।  আর ৫০ পাতার চেক বইয়ের দাম ১৫০ টাকা।  তার ওপরও দিতে হবে সার্ভিস ট্যাক্স।

শুধু তাই নয়, এমনকী এটিএম এবং ব্যাংকে গিয়ে টাকা তোলার ক্ষেত্রেও বাড়তি বোঝা চেপেছে গ্রাহকের ওপর।  ব্যাংক হোক বা এটিএম, এখন থেকে প্রতিমাসে বিনামূল্যে টাকা তোলা যাবে শুধুমাত্র ৪ বার।  ৪ বারের পর ব্যাংকে গিয়ে টাকা তুললে প্রতিবার দিতে হবে ৫০ টাকা।  এবং এর সঙ্গে দিতে হবে সার্ভিস ট্যাক্সও।  ৪ বারের পর এসবিআই এটিএমে টাকা তুললে প্রতিবার কাটা হবে ১০টাকা করে।  সঙ্গে সার্ভিস ট্যাক্স।  অন্য এটিএমের ক্ষেত্রে তা বেড়ে হয়েছে ২০ টাকা এবং অবশ্যই দিতে হবে সার্ভিস ট্যাক্স। তবে এই নিয়ম বেসিক সেভিংস অ্যাকাউন্ট (গরিব মানুষদের জন্য বা গ্রামাঞ্চলে) ক্ষেত্রে প্রযোজ্য।

অন্যদিকে, অন্যান্য সেভিংস অ্যাকাউন্টধারীদের (মেট্রো শহরগুলিতে) ক্ষেত্রে ৮টি এটিএম লেনদেন বিনামূল্যে দেওয়া হবে।  এর মধ্যে পাঁচটি এসবিআই এটিএম ও ৩টি অন্যান্য ব্যাংকের এটিএম।  নন-মেট্রো শহরের জন্য এই ঊর্ধ্বসীমা ১০টি।  শুধু তাই নয়, ব্যাঙ্কের তরফে জানানা হয়েছে, এবার থেকে কেবলমাত্র রুপে ক্লাসিক ডেবিট কার্ড বিনামূল্যে দেওয়া হবে।  নতুন ধরনের ডেবিট কার্ডের (যেমন চিপ-সহ) জন্য চার্জ ধার্য করা হবে।
এসবিআইয়ের এই সিদ্ধান্ত নিয়ে প্রশ্ন তুলছে অর্থনীতিবিদদের একাংশ।  নোংরা টাকা পরিবর্তন করতেও চার্জ বসাচ্ছে এসবিআই।  বযাংক জানিয়েছে, মূল্যে ৫ হাজার টাকা পর্যন্ত বা ২০ পিস পর্যন্ত নোংরা নোট পরিবর্তন করতে কোনও চার্জ লাগবে না। কিন্তু এর বেশি হলে– সেক্ষত্রে প্রতি পিসে ২ টাকা, বা প্রতি এক হাজার (মূল্যে) ৫ টাকা চার্জ বসানো হবে।