মুম্বই: স্থায়ী আমানত এবং গৃহঋণে সুদের হার কমাল স্টেট ব্যাংক অব ইন্ডিয়া। সোমবার সুদের হার কমানো ঘোষণার ফলে এই নিয়ে এক বছরের মধ্যে পাঁচবার সুদ কমাল স্টেট ব্যাংক৷ এমন ঘটনায় একদিনে কপালে চিন্তার ভাজ পড়েছে নিম্নবিত্ত, মধ্যবিত্ত গ্রাহকদের বিশেষত প্রবীণ নাগরিক যাদের সংসার চলে স্থায়ী আমানতের সুদের টাকায়৷ তবে গৃহঋণ যারা নিয়েছিলেন তাঁদের মুখে কিছুটা স্বস্তির হাসি৷

এদিন এসবিআই ঘোষণা করে মার্জিনাল কস্ট বেসড লেন্ডিং রেট বা এমসিএলআর ১০ বেসিস পয়েন্ট কমানোর৷ এর অর্থ হল প্রতি বছর ৮.১৫ শতাংশ এমসিএলআর গ্রাহককে দিতে হবে যেখানে সেটা এতদিন ছিল ৮.২৫ শতাংশ। নয়া হার ১০ সেপ্টেম্বর অর্থাৎ আগামিকাল থেকে কার্যকর হচ্ছে ৷ তবে এর অর্থ এমন নয় যে আগামিকাল থেকেই গ্রাহককে গৃহঋণের ইএমআই কমে যাচ্ছে। স্টেট ব্যাংকের গৃহঋণের ফ্লোটিং রেট একবছর ধরে এমসিএলআর-এর সঙ্গে যুক্ত হয়েছে। এরফলে গৃহঋণে ব্যাংকের রিসেট ক্লজ যদি অগস্ট হয় এবং সেপ্টেম্বরে গৃহঋণে সুদের হার কমে থাকে, তাহলে পরবর্তী অগস্ট মাস পর্যন্ত গৃহঋণে সুদের হার কমবে না।

আবার ১অগস্ট রিজার্ভ ব্যাংক রেপো রেট ৩৫ বেসিস পয়েন্ট কমানোর পর এক দফা সুদ কমানোর কথা এসবিআই ঘোষণা করে। দিন ১৫ মধ্যে ফের ১০ থেকে ৫০ বেসিস পয়েন্ট পর্যন্ত কমানো হয় সুদের হার। ২৬ অগস্ট থেকে তা কার্যকর হয়। আবার দিন ১৫ দিনের মাথায় ১০সেপ্টেম্বর ফের স্থায়ী আমানতে সুদের হার কমানোয় গ্রাহকেরা উদ্বেগ৷ প্রবীণ নাগরিকদের ক্ষেত্রেও কাটছাঁট করা হয়েছে এই সুদের হারে। স্থায়ী আমানতে পরিবর্তিত সুদের হার ১০ সেপ্টেম্বর থেকে কার্যকর হওয়ার কথা।

বিভিন্ন মেয়াদের স্থায়ী আমানতে ২০ থেকে ২৫ বেসিস পয়েন্ট কমিয়েছে স্টেট ব্যাংক। তবে ৭ দিন থেকে ৪৫ দিন,৪৬ দিন থেকে ১৭৯ দিন এবং ৩ বছরের বেশি মেয়াদের স্থায়ী আমানতে সুদের হারের কোনও পরিবর্তন হয়নি।