ফাইল ছবি

স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: পুরভোটের আগে বাংলায় জনসভা করলেন বিজেপির সেকেন্ড ইন কমান্ড অমিত শাহ। কিন্তু পুরভোট নিয়ে একটা শব্দও উচ্চারণ করলেন না। বার বার অমিত শাহ বুঝিয়ে দিলেন, তাঁদের লক্ষ্য, ২০২১ সালের বিধানসভা। অমিতের এই বার্তার পর প্রশ্ন উঠছে, তাহলে কি পুরভোটে তৃণমূলকে ওয়াকওভার দিল বিজেপি? যদিও সেই সম্ভবনা পুরোপুরি খারিজ করে দিয়েছে রাজ্য বিজেপি।

রাজ্য নেতৃত্বকে পুরভোটে লড়ার রণকৌশল ঠিক করে দেবেন দলের সর্বভারতীয় সভাপতি। বিজেপির অনেকেই এমনটা আশা করেছিলেন। কিন্তু রবিবার বাংলায় এসে অমিত শাহ বুঝিয়ে দিলেন, তিনি এখন আর অন্য কোনও দিকে তাকাতে চান না। এখন থেকে বাংলায় দল যে কর্মসূচিই নেবে, তা ২০২১ সালের বিধানসভা নির্বাচনে পশ্চিমবঙ্গের ক্ষমতা দখল করার জন্যই নেবে।

শহিদ মিনার ময়দানে আধ ঘণ্টার ভাষণে দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরও স্পষ্ট করে বুঝিয়ে দিলেন, বাংলায় তাঁর কাছে এখন পাখির চোখ শুধুমাত্র ২০২১-এর বিধানসভা নির্বাচন। আর সেই পাখির চোখকে বিঁধে ফেলার জন্য কোন কোন হাতিয়ার ব্যবহার করতে হবে, কী ভাবে করতে হবে, তা-ও স্পষ্ট বুঝিয়ে দিয়ে গেলেন কর্মী-সমর্থকদের। ভাষণের শেষ দিকে তৃণমূলের নাম করেই শাহের স্পষ্ট হুঁশিয়ারি, ‘‘আমরা কাউকে ছাড়ব না।’’

আরও পড়ুন – যাঁরা ‘গোলি মারো’ স্লোগান দিল তাদের জামাই আদর করল মমতার পুলিশ: সোমেন

অমিত শাহ বললেন, ‘‘আর নয় অন্যায়। বন্ধুরা, এই স্লোগান পশ্চিমবঙ্গে সরকার পাল্টানোর স্লোগান।’’ উল্লেখ্য, এদিন থেকেই এই কর্মসূচি চালু করল রাজ্য বিজেপি।

অমিত শাহর বক্তব্যে এদিন পুরোপুরি পুরসভা ভোটের বিষয়টি উহ্য থাকায় গেরুয়া শিবিরের অনেকেই অবাক হয়েছেন। এবিষয়ে রাজ্য বিজেপির সাধারণ সম্পাদক সায়ন্তন বসু বলেন, পুরভোট কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের বিষয় নয়। এটা শহরের নেতারাই দেখে নিতে পারবেন। তাঁরাই প্রার্থী ঠিক করবেন। রাজ্য নেতৃত্ব তাদের সবরকম সহযোগিতা করবে।

সায়ন্তন জানিয়েছেন, পুরভোটে তৃণমূলকে একচুলও জায়গা ছাড়বে না বিজেপি। শুধু তাই নয়, পুরসভা ভোট জিতবে বলেও আত্মবিশ্বাসী তিনি।