ফাইল ছবি

মেদিনীপুর: পুলিশের গাড়ি জ্বালিয়ে দেওয়ার হুমকি বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসুর। শনিবার বিজেপির পশ্চিম মেদিনীপুরের নারায়ণগড় থানা ঘেরাও কর্মসূচিতে অংশ নিয়েছিলেন রাজ্য বিজেপির সাধারণ সম্পাদক সায়ন্তন বসু।

পুলিশকে হুমকি দিয়ে সায়ন্তন বলেন, ‘‘বিজেপিকর্মীদের উপর অত্যাচার করে, মিথ্যা মামলায় গ্রেফতার করে কোনও থানার ওসি যদি মাফিয়াদের দেওয়া তোলার টাকায় দামি গাড়ি চড়েন, তবে তাঁর গাড়ি জ্বালিয়ে দিন।’’

এর আগেও একাধিকবার দলের সভা ও অন্য কর্মসূচিতে কর্মীদের চাঙ্গা করতে নানারকম উত্তেজক মন্তব্য করেছেন বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসু। দাঁতন থানা জ্বালিয়ে দেওয়ারও হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন সায়ন্তন।

সেই সময়েও বিজেপি নেতার মন্তব্যকে কেন্দ্র করে বিতর্ক তৈরি হয়। বিশিষ্টজনেরা তীব্র প্রতিবাদ জানান সায়ন্তনের মন্তব্য নিয়ে। শনিবার নারাযণগড় থানা ঘেরাও কর্মসূচি ছিল বিজেপির। দলের এই কর্মসূচিতেই যোগ দিয়েছিলেন বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসু।

এদিন পুলিশকর্মীদের হুঁশিয়ারি দেয় সায়ন্তন বলেন, ‘‘পুলিশের কাজ ও তৃণমূল নেতাদের কাজের দিকে নজর রাখুন। বিজেপি কর্মীরা টাকা নিয়ে ম্যানেজ হন না। যে পুলিশকর্মীরা এটা ভাবছেন তাঁরা মুর্খের স্বর্গে বাস করছেন।’’

দিন কয়েক আগেই নারায়ণগড়ে সদস্য সংগ্রহ অভিযানে বেরিয়েছিলেন বিজেপি কর্মীরা। তখনই তাঁদের উপর দুষ্কৃতীরা হামলা চালায়। তৃণমূলের মদতেই সেই হামলা চলে বলে অভিযোগ বিজেপিকর্মীদের। যদিও বিজেপির এই অভিযোগ অস্বীকার করে স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব।

নারায়ণগড় থানায় অভিযোগ জানাতে গেলে পুলিশ হয়রানি করে বলে অভিযোগ বিজেপি নেতাদের। অভিযোগ দায়ের না করে বিজেপিকর্মীদের থানা থেকে ফিরিয়ে দেওয়া হয় বলে দাবি বিজেপি নেতা-কর্মীদের। তারই প্রতিবাদে শনিবার নারায়ণগড় থানা ঘেরাও কর্মসূচির আযোজন করা হয়েছিল স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্বের তরফে।

প্রশ্ন অনেক-এর বিশেষ পর্ব 'দশভূজা'য় মুখোমুখি ঝুলন গোস্বামী।