মুখে একগাল সাদা দাঁড়ি, মাথায় উসকো খুসকো চুল৷ গায়ে নীল রঙের দারোয়ানের পোশাক৷ বোঝাই দায় তিনি ব্ল্যাক ফ্রাইডে, পাতিয়ালা হাউস, গুলালের মতো বলিউড ছবিতে অভিনয় করেছেন৷

এখন হাতে আর কাজ নেই৷ প্রডিউসারদের দরজায় ঘুরেও কোনও লাভ হয়নি৷ কঠিন বাস্তবের মুখে দাঁড়িয়েও লড়াই চালিয়ে গিয়েছেন৷ ভেঙে পড়েও সামলে নিয়েছেন৷ হাতে কাজ কাজ নেই বলে বিপথে চলে যাননি৷ সামান্য মাস মাইনেতে এখন চৌকিদারির কাজ করছেন৷

অভিনেতা স্যাভি সিধু এখন মুম্বইয়ের একটি বহুতলের দারোয়ানের চাকরি করেন৷ সম্প্রতি একটি ম্যাগাজিনে তাঁর ইন্টারভিউ বের হয়৷ সেখানে তিনি বলেন, স্বাস্থ্যজনিত কারণে কিছুদিন বলিউড থেকে ব্রেক নেন৷ পরে সুস্থ হয়ে কাজে ফিরে আসেন৷ কিন্তু বলিউড তাঁর দিকে আর ফিরেও তাকায়নি৷ তাই বাধ্য হয়ে চৌকিদারির কাজে নামেন৷ তবে এতকিছুর পরেও অভিনয়কে তিনি ছাড়তে পারেননি৷ তাঁর আশা, ফের বলিউড তাঁকে আপন করে নেবে৷ আবার আগের মতো কাজের অফার আসবে৷

এই ইন্টারভিউ প্রকাশের পর স্যাভির কথা মনে পড়ে বলিউডের৷ সিনে জগতের অনেকেই এখন তাঁর প্রতি সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছে৷ অনুরাগ কাশ্যপ ও রাজকুমার রাও ট্যুইট করে সাহায্যের আশ্বাস দিয়েছেন৷ জানিয়েছেন, বলিউডে কাজ পাইয়ে দিতে তাঁরা সাহায্য করবেন৷ অনুরাগ কাশ্যপের ছবি ব্ল্যাক ফ্রাইডেতে কমিশনার সামরার ভূমিকায় অভিনয় করেন স্যাভি৷ কাশ্যপের পরবর্তী ছবি গুলাল ও নিখিল আদবানীর পাতিয়ালা হাউস সিনেমায় ছোট রোলে অভিনয় করেন৷ সেই কাশ্যপ একের পর এক ট্যুইট করে লেখেন, অনেকে কাজ হারিয়ে নেশাগ্রস্ত হয়ে পড়েন৷ জীবনের মূল্য হারিয়ে ফেলেন৷ সেখানে স্যাভি সম্মানের সঙ্গে বাঁচার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন৷ এবং এমন এক কাজ করছেন যা কেউ করার কথা ভাববেও না৷