রাজকোট: সুযোগ ছিল লেজ ছেঁটে প্রথম ইনিংসে চারশো রানের মধ্যে সৌরাষ্ট্রকে আটকে রাখার৷ তবে শেষ উইকেটে ধর্মেন্দ্রসিং জাদেজাকে সঙ্গে নিয়ে ক্যাপ্টেন উনাদকাট ৩৮ রান যোগ করায় মানসিকভাবে এগিয়ে থাকা সম্ভব হল না বাংলার৷ তৃতীয় দিনের প্রথম ঘণ্টাতেই চেতেশ্বর পূজারাদের প্রথম দফায় অল-আউট করে দেয় বঙ্গ ব্রিগেড৷ তবে ততক্ষণে স্কোর বোর্ডে ৪২৫ রান তুলে ফেলেছে সৌরাষ্ট্র৷ অর্থাৎ প্রথম ইনিংসে এগিয়ে থেকে রঞ্জি চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পথে এক পা বাড়িয়ে রাখতে বাংলাকে সামলাতে হবে কঠিন চ্যালেঞ্জ৷

দ্বিতীয় দিনের শেষে সৌরাষ্ট্র তাদের প্রথম ইনিংসে ৮ উইকেট হারিয়ে ৩৮৪ রান তুলেছিল৷ তার পর থেকে খেলতে নেমে তৃতীয় দিনের শুরুতেই আউট হন গত দিনের অপরাজিত ব্যাটসম্যান চিরাগ জানি৷ আকাশ দীপের নেমে যাওয়া বলে প্লেড-অন হয়ে সাজঘরে ফেরেন চিরাগ৷ আউট হওয়ার আগে তিনি ১৪ রান করেন৷

আরও পড়ুন: করোনা আতঙ্কে মাস্ক পরলেন ভারতীয় দলের ক্রিকেটার

জাদেজা ও উনাদকাট আগ্রাসী ব্যাটিং করে দলকে চারশো রানের গণ্ডি পার করান৷ শেষে শাহবাজ আহমেদ উনাদকাটকে বোল্ড করে সৌরাষ্ট্রের প্রথম ইনিংসে দাঁড়ি টেনে দেন৷ উনাদকাট ২০ রানের কার্যকরী যোগদান রাখেন৷ ধর্মেন্দ্রসিং জাদেজা অপরাজিত থাকেন ব্যক্তিগত ৩৩ রানে৷

সব মিলিয়ে প্রথম ইনিংসে সৌরাষ্ট্রের হয়ে সর্বাধিক ১০৬ রান করেন অর্পিত বাদবদা৷ চেতেশ্বর পূজারা করেন ৬৬ রান৷ অভি ব্যারট ও বিশ্বরাজ জাদেজা উভয়েই ৫৪ রানের অনবদ্য ইনিংস খেলেন৷

আরও পড়ুন: ইরফানের ব্যাটে উত্তেজক জয় ভারতের

বাংলার হয়ে প্রথম ইনিংসে ৯৮ রানের বিনিময়ে ৪টি উইকেট দখল করেন আকাশ দীপ৷ ১০৩ রান খরচ করে ৩টি উইকেট নেন শাহবাজ আহমেদ৷ ২টি উইকেট নিয়েছেন মুকেশ কুমার৷ ১টি উইকেট ইশান পোড়েলের৷

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও