রিয়াধ: তাঁদের দোষ একটাই, জনসমক্ষে তাঁরা এসেছিলেন নারীবেশে৷ তাঁরা যে রুপান্তরকামী৷ তবে এমন করুণ-কঠোর বাস্তবের সম্মুখীন যে হতে হবে তাঁদের তা বোধ হয় কল্পনাও করতে পারেনি কেউ৷ জানা গিয়েছে, সৌদি আরবের পুলিশের হাতে দুই পাকিস্তানি রুপান্তরকামী অত্যাচারিত হয় উপরিউক্ত কারণে৷ ফলস্বরূপ মৃত্যু হয় তাদের৷

আরও পড়ুন: অমানবিক! জঞ্জালের মধ্যে বিস্ফোরণে নিহত পাকিস্তানিদের দেহাংশ

পাকিস্তানের মিনগোরা এলাকার আমনা(৩৫) এবং পেশোয়ারের মীনো(২৬), এই দুই ব্যক্তির মৃত্যু হয় পুলিশি হেফাজতেই৷ জানা যাচ্ছে, এই দুই ব্যক্তিকে বস্তার মধ্যে ভরে তাদের লাঠি দিয়ে মারতে থাকে পুলিশ৷
এক ট্রান্সজেন্ডার রাইটস অ্যাকটিভিস্ট কামার নাসিম বলেছেন, বস্তার মধ্যে ভরে লাঠি দিয়ে এভাবে আঘাত করা এক অমানবিক বিষয়৷

আরও পড়ুন: ৪০ হাজার পাকিস্তানিকে ফেরত পাঠানো হয়েছে সৌদি আরব থেকে

পাকিস্তানে রুপান্তরকামীদের একটি অনুষ্ঠান গুরু-চেলা চালানে সৌদি কর্তৃপক্ষ অতর্কিতে অভিযানে চালিয়ে ৩৫জনকে গ্রেফতার করে৷ ১৫০,০০০রিয়াল দিয়ে ১১জন মুক্তি পেলেও, বাকি ২২জন পুলিশি হেফাজতেই রয়েছে৷ তারা মুক্তি পাবে কিনা তা এখনও অনিশ্চিত, কারণ রুপান্তরকামীদের জীবনের হয়তো কারও কাছেই খুব একটা মূল্যবান নয়, এমনকি সরকারও নয়, মন্তব্য কামার নাসিমের৷