স্টাফ রিপোর্টার, নয়াদিল্লি: চলতি সপ্তাহেই পাকিস্তানে আসছেন সৌদি আরবের যুবরাজ মহম্মদ বিন সলমন৷ ১৯ ফেব্রুয়ারি দু’দিনের ভারত সফরে আসার কথা রয়েছে তাঁর৷ দুই দেশে সফরকালে একাধিক ক্ষেত্রে বিনিয়োগের বার্তা দেবেন সলমন এমনটাই আসা করছেন বিশেষজ্ঞ মহল৷

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর আমন্ত্রণে নিজের দেশের ব্যবসায়ীদের নিয়ে যুবরাজ ভারত সফরে আসবেন৷ বিদেশমন্ত্র সূত্রে এরকমই খবর পাওয়া গিয়েছে৷ গতবছর নভেম্বরে মোদীর সঙ্গে জি-২০ সম্মেলনে আর্জেন্টিনায় দেখা হয়েছিল বিন সলমনের৷ সৌদি আরব সবচেয়ে বেশি অশোধিত তেল সরবরাহ করে ভারতেই৷ তবে দু দেশের মধ্যে সম্পর্ক তেলই সীমাবদ্ধ নেই৷

বিদেশমন্ত্রক এক বিবৃতিতে বলেছে, সম্প্রতি কয়েকবছরে জ্বালানি, বাণিজ্য এবং বিনিয়োগসহ পারষ্পরিক স্বার্থসংশ্লিষ্ট কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ ক্ষেত্রে দু’দেশের মধ্যে দ্বিপক্ষীয় সহযোগিতার পরিসর বেড়েছে৷ রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের একাংশের মতে এই সফরে সৌদি যুবরাজ জাতীয় প্রাথমিকভাবে বিনিয়োগের ঘোষণা করতে পারেন৷ যার ফলে বন্দর এবং মহাসড়ক নির্মাণের কাজে গতি আসবে৷ সূত্রের খবর সৌদি আরব ভারতের ফার্ম সেক্টরেও বিনিয়োগ করতে আগ্রহ প্রকাশ করেছে৷ ভারতও সৌদি আরবে পণ্য রপ্তানিতেও আগ্রহ প্রকাশ করেছে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট মন্ত্রকের এক আধিকারিক৷

মুসলিম দেশ হওয়ার কারণে পাকিস্তানের সঙ্গে সৌদি আরবের দীর্ঘদিনের ভালো সম্পর্ক৷ গতবছর অক্টেবরের শেষ দিকে সৌদি আরব পাকিস্তানের অর্থনীতিকে সচল রাখতে ৬শ’ কোটি ডলার ঋণ দিয়েছিল৷ এবারের পাকিস্তান সফরেও সলমন পাকিস্তানে প্রচুর বিনিয়োগ করবেন জানা গিয়েছে৷ যার মধ্যে প্রায় ১ হাজার কোটি ডলারের তেল শোধনাগার এবং পেট্রোকেমিক্যাল কমপ্লেক্স রয়েছে৷ যেটি নির্মিত হবে গোয়াদর বন্দরে৷