স্টাফ রিপোর্টার , কলকাতা : গত ২৪ ঘণ্টায় এক ডিগ্রি নেমেছে কলকাতার পারদ। সঙ্গে গত সপ্তাহে শনিবার থেকেই আবহাওয়া পরিবর্তনের ইঙ্গিত মিলছিল শহরে। এবার তা আরও স্পষ্ট। তখন বৃষ্টির আবহে নেমেছিল কলকাতার তাপমাত্রা এবার একদম স্বাভাবিক নিয়মে হিমেল হাওয়ার ভাব শহরের আবহাওয়ায়।

শনিবার শহরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২২.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি বেশি। শুক্রবার বিকালে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৩.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে দুই ডিগ্রি বেশি। বৃষ্টি হয়নি। আর্দ্রতার পরিমান সর্বোচ্চ ৭৯ ও সর্বনিম্ন ৫২ শতাংশ। তাপমাত্রা থাকবে সর্বনিম্ন ২৩ ডিগ্রি থেকে সর্বোচ্চ ৩৩ ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশেপাশে।

শুক্রবার শহরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৩.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি বেশি। বৃহস্পতিবার বিকালে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৩.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে দুই ডিগ্রি বেশি। বৃষ্টি হয়নি। আর্দ্রতার পরিমান সর্বোচ্চ ৮৯ ও সর্বনিম্ন ৫৩ শতাংশ। তাপমাত্রা থাকবে সর্বনিম্ন ২৩ ডিগ্রি থেকে সর্বোচ্চ ৩৩ ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশেপাশে।

বুধবার শহরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২১.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি কম। মঙ্গলবার বিকালে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৩.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে দুই ডিগ্রি বেশি। বৃষ্টি হয়নি। আর্দ্রতার পরিমান সর্বোচ্চ ৯৩ ও সর্বনিম্ন ৩৬ শতাংশ। রবিবার শহরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৪.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে দুই ডিগ্রি বেশি। শনিবার বিকালে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩০.৮ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে চার ডিগ্রি কম। বৃষ্টি হয়নি। আর্দ্রতার পরিমান ছিল সর্বোচ্চ ৯৪ ও সর্বনিম্ন ৬৫ শতাংশ।

মঙ্গলবার শহরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২১.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে দুই ডিগ্রি কম। সোমবার বিকালে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৩.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে দুই ডিগ্রি বেশি। বৃষ্টি হয়নি। আর্দ্রতার পরিমান সর্বোচ্চ ৯৫ ও সর্বনিম্ন ৩৬ শতাংশ। তাপমাত্রা থাকবে সর্বনিম্ন ২৩ ডিগ্রি থেকে সর্বোচ্চ ৩২ ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশেপাশে। রবিবার শহরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৪.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে দুই ডিগ্রি বেশি। শনিবার বিকালে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩০.৮ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে চার ডিগ্রি কম। বৃষ্টি হয়নি। আর্দ্রতার পরিমান ছিল সর্বোচ্চ ৯৪ ও সর্বনিম্ন ৬৫ শতাংশ।

গত শনিবার শহরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৩.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি বেশি। শুক্রবার বিকালে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ২৭.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে চার ডিগ্রি কম। বৃষ্টি হয় ১.২ মিলিমিটার। আর্দ্রতার পরিমান সর্বোচ্চ ৯৩ ও সর্বনিম্ন ৮৬ শতাংশ। ওই সপ্তাহে শুক্রবার শহরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৪.০ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি বেশি। বৃহস্পতিবার বিকালে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ২৭.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে পাঁচ ডিগ্রি কম। বৃষ্টি হয়েছিল ০.২ মিলিমিটার। আর্দ্রতার পরিমান ছিল সর্বোচ্চ ৯৫ ও সর্বনিম্ন ৭৭ শতাংশ। সেই সপ্তাহে বৃহস্পতিবার কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৫.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে দুই ডিগ্রি বেশি। বুধবার বিকালে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৩.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি বেশি। বৃষ্টি হয়েছে ০.৬ মিলিমিটার। আর্দ্রতার পরিমান সর্বোচ্চ ৯২ ও সর্বনিম্ন ৬১ শতাংশ।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।