কলকাতা: স্যাটের কাছে ফের রাজ্য সরকারের ধাক্কা৷ রাজ্য সরকারি কর্মীদের বকেয়া ডিএ বা মহার্ঘ ভাতা মেটাতে সময়সীমা বেঁধে দিল স্যাট৷ যদিও এই রায়ের প্রেক্ষিতে ফের আদালতে যেতে পারে রাজ্য সরকার, এমটাই মনে করছেন কর্মচারী সংগঠনের একাংশ৷

বুধবার রাজ্য প্রশাসনিক ট্রাইবুনাল বা স্যাট মমতা সরকারকে আগামী ১৬ ডিসেম্বরের মধ্যে বকেয়া ডিএ মেটানোর নির্দেশ দিয়েছে৷

আর এই মামলায় রাজ্য সরকারের দাবি ছিল যে, করোনা পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে যেন পুরো বিষয়টা বিচার করা হয়। কিন্তু, হাইকোর্ট সেকথা মামতে নারাজ। করোনা পরিস্থিতির মধ্যেই রাজ্য সরকারি কর্মীদের প্রাপ্য দেওয়ার কথা জানিয়েছে আদালত।

এর আগে ২০১৯ এর জুলাইয়ে এক বছরের মধ্যে ডিএ মেটানোর নির্দেশ দিয়েছিল স্যাট৷ তখন রাজ্য সরকার রিভিউ পিটিশন করেছিল৷ কিন্তু তা খারিজ করে ২০১৯-এর রায়ই বহাল রাখে স্যাট৷ তারপরও রাজ্য সরকার তা কার্যকর করেনি৷

২০১৯ এ স্যাট তাদের নির্দেশিকায় বলেছিল, যাতে মূল্য সূচক মেনে রাজ্য সরকারি কর্মীদের ডিএ দেওয়া হয়। আর এই ডিএ দেওয়ার জন্য যা যা প্রক্রিয়া হয়, সেসব সম্পন্ন করতে বলা হয়েছিল তিন মাসের মধ্যে। কিন্তু তিন মাস কেটে গেলেও আশার আলো দেখেনি রাজ্যের সরকারি কর্মীরা।

এরপর হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছেন রাজ্য সরকারি কর্মীরা। তাঁদের দাবি, স্যাটের নির্দেশ অমান্য করে আদালত অবমাননা করেছে রাজ্য সরকার। সেই মামলার ভার্চুয়াল শুনানি শেষে বুধবার স্যাট স্পষ্ট জানিয়ে দিল,রাজ্য সরকারকে আগামী ১৬ ডিসেম্বরের মধ্যে বকেয়া ডিএ মেটাতে হবে৷

এবার দেখার এই রায়ের পর রাজ্য সরকার কি পদক্ষেপ নেয়৷

পচামড়াজাত পণ্যের ফ্যাশনের দুনিয়ায় উজ্জ্বল তাঁর নাম, মুখোমুখি দশভূজা তাসলিমা মিজি।