বারাকপুর: প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে বেনজির আক্রমণ রাজ্যের মন্ত্রী শশী পাঁজার। প্রধানমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে ডেঙ্গির মশার সঙ্গে তুলোধনা করলেন রাজ্যের নারী ও শিশু কল্যাণ মন্ত্রী শশী পাঁজা। ভাটপাড়ায় তৃণমূলের একটি কর্মসূচিতে যোগ দিয়ে এই মন্তব্য করেন শশী পাঁজা।

উত্তর ২৪ পরগনার ভাটপাড়ায় তৃণমূল কর্মীদের উদ্যোগে আয়োজিত দুঃস্থদের কম্বল বিতরণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের নারী ও শিশুকল্যাণ মন্ত্রী শশী পাঁজা। অনুষ্ঠান মঞ্চে বক্তৃতা করতে গিয়ে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন নিয়ে শুরু থেকেই তীব্র আক্রমণ করে প্রধানমন্ত্রী ও কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে। শশী পাঁজা বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ কি ঠিক করে দেবেন আমরা কারা দেশের নাগরিক বা কারা নাগরিক নয় । শুধুমাত্র দু’জন বিচার করবেন কে দেশের নাগরিক ? এটা হয় না ।’

মোদী-শাহকে তুলোধনা করে শাশীর আরও কটাক্ষ, ‘ওঁরা হলেন ডেঙ্গি ও ম্যালেরিয়ার মশার মতো। মোদীর ‘ম’ এবং অমিত শাহের ‘শা’ যদি নিয়ে নিই, দেখবেন ওঁদের মিলিত নাম মশাই হবে । ডেঙ্গি ও ম্যালেরিয়া মশার মতোই ওঁরাও সমান বিপজ্জনক। ডেঙ্গির মশার কামড়ে অনেক সময় যেমন মানুষের মৃত্যু হয়, তেমনি এই দুই নেতার জন্য এনআরসি আতঙ্কে প্রচুর মানুষের মৃত্যু হচ্ছে। অনেকেই আত্মহত্যা করছেন। এই দুই নেতারা ক্ষমতা থেকে যত তাড়াতাড়ি চলে যায় ততই ভাল। গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে দেশের মানুষ এদের ক্ষমতা থেকে সরিয়ে দেবে।’

নাগরিকত্ব আইন, এনআরসি, এনপিআর নিয়ে কেন্দ্র-বিরোধিতায় প্রথম থেকেই সোচ্চার তৃণমূলনেত্রী। অবিলম্বে নাগরিকত্ব আইন ও এনআরসি বাতিলের দাবি জানিয়ছএন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। দাবি আদায়ে লাগাতার আন্দোলনের ডাক দিয়েছেন তৃণমূল সুপ্রিমো। কলকাতায় একাধিক প্রতিবাদ মিছিলের পর জেলাগুলিতেও একের পর কর্মসূচি নিচ্ছেন তৃণমূলনেত্রী। এর আগে পুরুলিয়া, মধ্য়মগ্রামে মহামিছিলে হেঁটেছিলেন। কেন্দ্র-বিরোধিতায় বুধবার তৃণমূলনেত্রী মিছিল করেন দার্জিলিঙেও। একইসঙ্গে রাজ্য বিধানসভাতেও এবার নাগরিকত্ব আইন বিরোধী প্রস্তাব পাশা করানোর উদ্যোগ নিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।