কলকাতাঃ নভেম্বরেই সারদা মামলার ফাইনাল চার্জশিট দিচ্ছে সিবিআই। সূত্রের খবর, এবারের চার্জশিটে নাম থাকতে পারে প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারের। আদালতের নির্দেশে শিলংয়ে ডেকে নিয়ে টানা পাঁচদিন জেরা করেছিল সিবিআই। সেখানে তার বয়ানে অনেক অসঙ্গতি ছিল বলে সিবিআই সূত্রে খবর।

এদিকে কলকাতা হাইকোর্ট রক্ষাকবজ তুলে নেওয়ার পর থেকেই বেপাত্তা এই আইপিএস ৷ পার্ক স্ট্রিটে রাজীবের বাসভবনে গিয়ে তল্লাসি চালাতে থাকেন সিবিআইয়ের গোয়েন্দারা৷ বাদ দেওয়া হয়নি রান্নাঘরও৷ বাসভবনে নোটিশ ঝুলিয়ে আসে সিবিআই৷ সেই নোটিশে বলা হয়, অবিলম্বে সিবিআইয়ের সঙ্গে দেখা করতে হবে৷ অন্যদিকে কলকাতা এবং বিধাননগরের প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমার আলিপুর আদালতে আগাম জামিনের আবেদন জানিয়েছেন৷

রাজীব কুমারের আইনজীবীরা আদালতে এই আবেদন জানানোর পাশাপাশি কলকাতায় সিবিআইয়ের দফতর – বিধাননগরের সিজিও কমপ্লেক্সেও এই বিষয়ে নোটিশ দিয়েছে৷ শনিবার এই মামলার শুনানি হবে৷ এর আগেও সারদা রিয়েলটি মামলায় সাপ্লিমেন্টারি চার্জশিট পেশ করেছে সিবিআই। সিবিআই সূত্রে খবর, সেই চার্জশিটে বেশ কয়েকজন প্রভাবশালী ব্যক্তির নাম ছিল । অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির বিভিন্ন ধারা আনা হয়েছে। তার মধ্যে রয়েছে ৪০৯ ধারায় অপরাধমূলক বিশ্বাসভঙ্গতা, ১২০ বি ধারায় অপরাধমূলক ষড়যন্ত্র ।

এছাড়া ৪২০ থাকায় প্রতারণার অভিযোগ আনা হয়েছে। পাশাপাশি, চিটফান্ড বিরোধী আইনের ৪ ও ৬ ধারাতেও অভিযোগ আনা হয়েছে। সে সময় সিবিআই সারদা রিয়েলটি মামলার চার্জশিটে সাতজনকে অভিযুক্ত করেছিল। তাঁরা হলেন সুদীপ্ত সেন, দেবযানি মুখোপাধ্যায়, রজত মজুমদার, দেবব্রত সরকার, সন্ধির আগরওয়াল, সজ্জন আগরওয়াল ও সদানন্দ গগৈ।