হবার্ট: মা হওয়ার পর প্রথমবার প্রতিযোগীতামূলক টেনিস খেলতে নেমে রীতিমতো আবেগমথিত সানিয়া মির্জা৷ ২ বছর পর পেশাদার সার্কিটে ফেরার মুহূর্তে সানিয়া নিজের পরিবার ও শিশুসন্তান ইজহানকে পাশে পেয়েছিলেন৷ প্রিয়জনদের সাক্ষি রেখেই ডব্লুিউটিএ ইভেন্টে কাম ব্যাকের মুহূর্ত স্মরণীয় করে রাখেন ভারতীয় টেনিস তারকা৷

ইউক্রেনের নাদিয়া কিচেনকের সঙ্গে জুটি বেঁধে হবার্ট ইন্টারন্যাশনালের ওমেনস ডাবলসে খেলতে নেমেছেন সানিয়া৷ প্রথম রাউন্ডে সানিয়া-নাদিয়া জুটি ২-৬, ৭-৬ (৭/৩), ১০-৩ সেটে হারিয়ে দেন জর্জিয়ান-জাপানি জুটি ওকসানা কালাশনিকোভা ও মিয়ু কাতোকে৷ কোর্ট থেক বেরিয়েই সানিয়া জয় সেলিব্রেট করেন ছেলে ইজহানের সঙ্গে৷ পেরাম্বুলেটরে থাকা ইজহানের সঙ্গে হাই-ফাইভ করেন সানিয়া৷

আরও পড়ুন: দলের জন্য বিরাট স্বার্থত্যাগ কোহলির

পরে সোশ্যাল মিডিয়ায় সানিয়া উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন এমন অসাধারণ মুহূর্তের জন্য৷ টুইটারে তিনি লেখেন, ‘আজকের দিনটা আমার জীবনের অন্যতম বিশেষ দিন৷ দীর্ঘদিন পর কোর্টে ফেরার সময় আমার বাবা-মা ও শিশু সন্তানকে পাশে পাওয়া এবং প্রথম রাউন্ডে জয় তুলে নেওয়া আনন্দের বিষয়৷ যে রকম ভালোবাসা পেলাম, তাতে আমি অভিভূত৷ বিশ্বাস আপনাকে লক্ষ্যে পৌঁছে দেয়৷ ইয়েস মাই বেবি বয়, আমরা এটা করে দেখাতে পেরেছি৷’

সঙ্গত কারণেই সানিয়ারা হবার্টে খেলতে নেমেছেন অবাছাই জুটি হিসেবে৷ যদিও প্রথম ম্যাচে সানিয়াদের জর্জিয়ান-জাপানি প্রতিপক্ষও বাছাই জুটির মর্যাদা পায়নি টুর্নামেন্টে৷ ডব্লুিউটিএ টুর্নামেন্টে ফেরার পর মানিয়ে নিতে একটু সময় লাগে বিশ্বের প্রাক্তন ১ নম্বর সানিয়ার৷ সেই সুযোগটা কাজে লাগিয়ে ওকসানা-কাতো জুটি প্রথম সেট ছিনিয়ে নেন ইন্দো-ইউক্রেন জুটির কাছ থেকে৷ তবে দ্বিতীয় টেস জিতে ম্যাচে সমতা ফেরান সানিয়া-নাদিয়া৷ সুপার টাইব্রেকে সানিয়াদের আগ্রাসী টেনিসের সামনে কার্যত দাঁড়াতেই পারেননি তাদের প্রতিপক্ষ জুটি৷

আরও পড়ুন: ভয়াবহ গাড়ি দুর্ঘটনায় আহত বিশ্বসেরা শাটলার

দ্বিতীয় রাউন্ডে সানিয়া-নাদিয়া জুটি কোর্টে নামবেন মার্কিন জুটি ক্রিশ্চিনা ম্যাকহেল ও ভ্যানিয়া কিংয়ের বিরুদ্ধে৷ প্রথম রাউন্ডে মার্কিন জুটি হারিয়ে দিয়েছে চতুর্থ বাছাই স্প্যানিশ জুটি জর্জিনা গার্সিয়া পেরেজ ও সারা সোরিবেস তোরমো জুটিকে৷ স্বাভাবিকভাবেই দ্বিতীয় রাউন্ডে সানিয়াদের সামনে কঠিন লড়াই অপেক্ষা করে রয়েছে৷