সুভাষ বৈদ্য, কলকাতা: বালি শিল্প বা স্যান্ড অ্যানিমেশন নিয়ে ছুটে বেড়িয়েছেন দেশ বিদেশে৷ কিন্তু এখন করোনা পরিস্থিতি ও লকডাউনে সবার সঙ্গে ঘরবন্দি sand artist (বালি শিল্পী) কলকাতার বাদল বাড়ৈ৷ ঘরে থেকেই স্যাণ্ড আর্টের মাধ্যমে ধন্যবাদ জানালেন কোভিড যোদ্ধাদের৷ বালি আর কাঁচ ব্যবহার করে শিল্পী কোভিড যোদ্ধাদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন৷ তার বালি শিল্প বা স্যান্ড অ্যানিমেশনের মাধ্যমে পুলিশ প্রশাসন, চিকিৎসক, নার্স, স্বাস্থ্যকর্মীসহ কোভিড যোদ্ধাদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন৷

তার হাতের ছোঁয়ায় যে ছবি ফুঁটে উঠেছে তা হল, একটি অ্যাম্বুলেন্স করোনা আক্রান্ত রোগী নিয়ে হাসপাতালে এসেছে৷ করোনা ভয়কে উপেক্ষা করে সঙ্গে সঙ্গে এগিয়ে আসেন একজন নার্স৷ মুখে মাস্ক৷ এরপর দেখা গেল একদিকে পুলিশ অন্যদিকে চিকিৎসক৷ জনগণের মধ্যে যাতে করোনা সংক্রমণ যাতে না ছড়িয়ে পড়ে, তার জন্য জনগণকে সতর্ক করছেন৷ পাশাপাশি যারা লকডাউন লঙ্ঘন করতে চাইছে তাদেরকে বোঝাচ্ছেন৷

অন্যদিকে চিকিৎসক,নার্স, স্বাস্থ্যকর্মীরা করোনা আক্রান্তদের সুস্থ করে তুলছেন৷ বলা যায় জনসাধারণ ও মৃত্যুর মাঝে একমাত্র পুলিশ ও চিকিৎসকরা৷ শিল্পীর ভাষায় এ এক কঠিন লড়াই৷ তাই কোভিড যোদ্ধাদের কুর্নিশ জানাতে তার এই উদ্যোগ, কলকাতা 24×7 কে জানালেন sand artist (বালি শিল্পী) বাদল বাড়ৈ৷ পাশাপাশি শিল্পীর আবেদন, এই ভয়ঙ্কর পরিস্থিতিতে পুলিশ এবং ডাক্তারদের তথা কোভিড যোদ্ধাদের কথা মেনে চলুন,ঘরে থাকুন৷ এর আগেও বালি আর কাঁচ ব্যবহার করে শিল্পী তার হাতের ছোঁয়ায় রূপ পেয়েছে দেবী দুর্গা৷ যা এক নতুন সৃষ্টি।

তবে দীঘা বা পুরীর সমুদ্র তীরে বালি দিয়ে তৈরি যে শিল্প দেখা যায়, তা থেকে এটা আলাদা। শুধু দেবী দুর্গার ছবিই নয়, বাদলবাবু হাতের জাদুতে ফুটিয়ে তুলেছেন কখনও রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, কখনও এপিজে আবদুল কালাম, কখনও ভালোবাসার ছবি। এতে মুগ্ধ দেশ-বিদেশের অনেক মানুষ। কলকাতা রাজভবনে ২০১৮ সালে তার একটি প্রদর্শনী দেখে শিল্পীর কাজের প্রশংসা করেন তৎকালীন রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠী।

বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে বালি শিল্প বা স্যান্ড অ্যানিমেশনের জনপ্রিয়তা রয়েছে। ভারতবর্ষেও এই শিল্পের জনপ্রিয়তা বাড়ছে। প্রায় ১০ বছর ধরে তিনি ভারতবর্ষের বিভিন্ন প্রান্তে স্যান্ড আর্ট প্রদর্শন করে অনেক প্রশংসা পেয়েছেন৷ এবার তার নতুন ভাবনা Sand castle.