মুম্বই: গ্রাহকদের কথা ভেবে এবারে পকেট সাধ্যের দামে নতুন ফোন আনতে চলেছে স্যামসং। দীর্ঘ কয়েক বছর ধরে গ্রাহকদের কাছে অল্প দামে আকর্ষণীয় মোবাইল পরিষেবা দিয়ে নিজেদের জায়গা পাকা করেছে। আর এবারেও তারা মধ্যবিত্ত ক্রেতাদের কথা মাথাতে রেখে ভারতের বাজারে লঞ্চ করতে চলেছে এক নয়া অ্যান্ড্রয়েড ফোন।

মনে করা হচ্ছে এর ফলে সুবিধা হবে সাধারণ গ্রাহকদের। স্মার্টফোনটির দাম এতটাই সস্তা যে সবার হাতে ফের একবার স্যামসং পৌঁছে যাবে বলে মনে করা হচ্ছে। ভারতের বাজারে এই ফোনের দাম রাখা হয়েছে ৫৪৯৯ টাকা। গ্রাহকেরা পাবেন ১ জিবি র‍্যাম এবং ১৬ জিবি স্টোরেজের সুবিধা।

তবে একটু বেশি মেমোরি সম্পন্ন ফোন কিনতে চাইলে গ্রাহকদের খরচ করতে হবে ৬৪৯৯ টাকা। তাতে পাওয়া যাবে ২ জিবি র‍্যাম+৩২ জিবি স্টোরেজ। অর্থাৎ মাত্র ১ হাজার টাকা বেশি খরচ করতে হবে গ্রাহকদের। এই নয়া ফোনটি পাওয়া যাচ্ছে মাত্র তিনটি রংয়ে। এই নয়া ফোন দেশের স্যামসং রিটেল স্টোরগুলিতে এই ফোন পাওয়া যাবে বলে জানা গিয়েছে।

এমনকি অনলাইনেও কিনতে পাওয়া যাবে আগামী ২৯ জুলাই থেকে। এর আগে এই ফোনটি লঞ্চ করা হয়েছিল ইন্দোনেশিয়াতে। সেখানে এই ফোনটির দাম ভারতীয় মুদ্রায় ছিল প্রায় ৫৬০০ টাকা। অর্থাৎ ভারতের বাজারে স্যামসংয়ের এই ফোনটি পাওয়া যাবে আরও সস্তায়। এই ফোনে রয়েছে ডুয়েল ন্যানো সিমের সুবিধা।

সঙ্গে রয়েছে অ্যান্ড্রয়েড গো অপারেটিং সিস্টেম। এছাড়াও এই ফোনে রয়েছে ৫.৩ ইঞ্চি ডিসপ্লে। সঙ্গে রয়েছে মিডিয়াটেক ৬৭৩৯ এসওসি। ফটো তোলা বা ভিডিওর জন্য পিছনে রয়েছে ৮ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। সঙ্গে রয়েছে এলইডি ফ্ল্যাশ। এছাড়াও সামনে রয়েছে ৫ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা।

তাছাড়াও ৩২ জিবি পর্যন্ত স্টোরেজের সুবিধা পাওয়া যাবে। তবে তা মেমোরি কার্ডের সাহায্যে বাড়িয়ে নেওয়া যাবে। এছাড়াও এই ফোনে রয়েছে আনুষঙ্গিক সুবিধা। যেমন ওয়াই ফাই, ৩.৫ এমএম হেড ফোন জ্যাক। এছাড়াও এই ফোনে রয়েছে ৩০০০ এমএএইচ ব্যাটারি। যা একবার চার্জে ১১ ঘণ্টা পর্যন্ত ব্যাক আপ দেবে।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.