মোবাইল প্রেমীদের জন্য সুখবর। দাম কমছে স্যামসং গ্যালাক্সি এ৫০ এবং এ৩০ ফোনের। মোবাইল ফোনের বাজারে স্যামসং তার নতুন নতুন ফোনের সাহায্যে ক্রেতাদের কাছে নিজেদের জায়গা করে নিয়েছিল। মূলত ভাল ব্যাটারি পরিষেবা এবং উন্নতমানের সফটওয়্যারের জন্য ক্রেতারা খুব সহজেই পছন্দ করেছিল এই ফোন। দাম কমাতে ক্রেতারা আরও যে খুশি হয়ে ঝাঁপিয়ে পড়বে তা বলার অপেক্ষা রাখে না। স্যামসং গালাক্সির এ৩০ ফোনের দাম যেখানে ১০০০ টাকা কমেছে সেখানে এ৫০ ফোনের দাম কমেছে ৩০০০ টাকা।

৪ জিবি র‍্যাম+১২৮ জিবি স্টোরেজ যুক্ত স্যামসং গ্যালাক্সি এ৫০ ফোনের দাম ১৯,৯৯৯ টাকা। স্যামসং গ্যালাক্সির এ ৫০ ৬ জিবি+১২৮ জিবি মেমরি সম্পন্ন ফোনের ক্ষেত্রে দাম হবে ২১,৯৯৯। নতুন দামে এই ফোন স্যামসং অনলাইন স্টোর, আমাজন সহ সকল অনলাইন স্টোরে পাওয়া যাবে।

এতে রয়েছে ডুয়েল সিমের সুবিধা। রয়েছে অ্যান্ড্রয়েড ৯ পাই। এতে রয়েছে ৬.৪ ইঞ্চি ফুল এইচডি ডিসপ্লে। রয়েছে মেমরি কার্ড ব্যবহার করার সুবিধাও। ক্যামেরার দিক থেকেও এই ফোন বাকিদের থেকে বেশ উন্নত। এতে রয়েছে ৪৮ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি শুটার। এছাড়াও রয়েছে ৮ মেগাপিক্সেল আলট্রা ওয়াইড অ্যাঙ্গেল শুটার এবং ৫ মেগাপিক্সেল ডেপ্থ সেন্সর। রয়েছে ৩২ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট শুটার।

অন্যদিকে স্যামসং গ্যালাক্সি এ৩০-র দাম কমেছে। নতুন দাম হয়েছে ১৪,৩৯৯ টাকা। ডুয়েল সিম যুক্ত এই ফোনের দাম কমাতে ক্রেতারা যে আরও বেশি আগ্রহী হবেন তা বলার অপেক্ষা থাকে না। এতে রয়েছে অ্যান্ড্রয়েড ৯ পাই। এতে রয়েছে ৬.৪ ইঞ্চি এইচডি স্ক্রিন। রয়েছে সুপার আমোলেড ডিসপ্লে। রয়েছে মেমরি কার্ডের সাহায্যে মেমরি বাড়ানোর সুবিধাও। এই দুই ফোনে রয়েছে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সরের সুবিধাও।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

কোনগুলো শিশু নির্যাতন এবং কিভাবে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো যায়। জানাচ্ছেন শিশু অধিকার বিশেষজ্ঞ সত্য গোপাল দে।