নয়াদিল্লি : ভোটের আঙিনায় নজর টানতে বিভিন্ন সেলেবদের প্রার্থী হিসেবে দাঁড় করানো তো বটেই, তাদের দিয়ে প্রচার করাতেও ছাড়ে না রাজনৈতিক দলগুলি। এই প্রচার তালিকার শীর্ষে থাকেন বলি-টলির নক্ষত্ররা। ২০১৯ এর লোকসভা নির্বাচনও তার ব্যতিক্রম নয়। দেশের প্রায় সবকটি বড়বড় আঞ্চলিক দলগুলি ইতিমধ্যেই নিজেদের প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করে দিয়েছে। প্রার্থী তালিকা ঘোষণার আগে প্রার্থী হিসেবে বহু তারকার নাম যেমন উঠে এসেছিল, নাম ঘোষণার পর বেশ কিছু অদল-বদল ঘটলেও দেখা গিয়েছে তারকা খচিত প্রার্থী তালিকা। লোকসভা ভোটে তেমনই উঠে এসেছিল সল্লু ভাইয়ের নাম।

কিন্তু বৃহস্পতিবার সমস্ত জল্পনার অবসান ঘটিয়ে অভিনেতা স্পষ্ট করে দিলেন, ভোটে দাঁড়ানো তো দুরস্ত কোন রাজনৈতিক দলের হয়ে প্রচারেও অংশ নেবেন না তিনি। নিজের টুইটার হ্যানডেলে পোস্ট করে এদিন জানিয়ে দেন সল্লু মিয়া। ” নিজের টুইটার হ্যানডেলে তিনি লেখেন, ” এইসব গুজব ছড়ানোর বিরুদ্ধে বলি, আমি কোন নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছি না এবং কোন রাজনৈতিক দলের হয়ে প্রচারও করব না। “

 

শোনা গিয়েছিল, যেহেতু সলমনের জন্মস্থান মধ্যপ্রদেশের ইন্দোরে, তাই মধ্যপ্রদেশ কংগ্রেস ইন্দোরে নিজেদের প্রচারের জন্য সলমন খানকে দলে টানার চেষ্টা করছে। বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের রিপোর্ট অনুযায়ী, কংগ্রেস মুখপাত্র পঙ্কজ চতুর্বেদি জানিয়েছিলেন, ইন্দোরে দলের জন্য কংগ্রেসের দলীয় নেতারা সলমনের সঙ্গে যোগাযোগ করেছিলেন এবং প্রায় নিশ্চিত হয়ে গিয়েছিল, তিনি কংগ্রেসের পক্ষে প্রচার করবেন।

যাতে অনুরাগীদের নজর টানা যায় তাই লোকসভা নির্বাচনের প্রচারের জন্য বহু বলিউড সেলিব্রিটিদের আহ্বান জানিয়েছেন নমো। সালমান খান, আমির খান, শাহরুখ খান, অমিতাভ বচ্চন সহ বহু সেলেবকেই নির্বাচনে অংশগ্রহণের মাধ্যমে নাগরিকদের উদ্বুদ্ধ করার প্রচার করতে আবেদন জানিয়েছিলেন মোদি। মোদী পোস্টে করেছিলেন, আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে ভোট দিতে নাগরিকদের আহ্বান জানাচ্ছেন ‘ ভারত ‘ অভিনেতা্রা। তিনি লিখেছিলেন, ” আমরা গণতন্ত্র এবং এটা প্রত্যেক ভারতীয়ের অধিকার ভোট দেওয়া।” আমি প্রত্যেক ভারতবাসীকেই অনুরোধ জানাচ্ছি, নিজেদের অধিকার বুঝে নিন এবং সরকার গঠনে সহায়তা করুন। “

শোনা গিয়েছিল, ২০০৯ সালে কংগ্রেসের ইন্দোর প্রার্থী পঙ্কজ সঙ্ঘবির জন্য একটি রোডশোতে অংশগ্রহণ করেন অভিনেতা, নির্বাচনী প্রচার কাজে অংশও নিয়েছিলেন। যদিও এই পদক্ষেপ খুব একটা কাজে লাগেনি সাংভির। কারন বর্ষীয়ান বিজেপি নেতা কৃষ্ণা মুরারি মোঘে তাকে পরাজিত করেন।

যদিও সালমান এটিকে নিজের ক্যারিয়ারে গুজব ছড়ানো ছাড়া আর কিছু বলছেন না। নিজের ভক্তদের ভোট দেবার জন্য অনুরোধও করবেন না তিনি বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন।