মুম্বই: “আমারও ভাইজান চাই”। তবে যে সে ভাই নয়, বজরঙ্গি ভাইজান। আট থেকে আশি সবার মন কেড়েছে পরিচালক কবীর খানের “বজরঙ্গি ভাইজান”। তাইতো সিনেমা-হল থেকে চোখের কোণে জল নিয়ে বেড়িয়ে, সবার মুখে একটাই কথা “স্পিস লেস”। এদের মধ্যেই ছিল খুদে এক দর্শক। মায়ের সঙ্গে ‘বজরঙ্গি ভাইজান’ দেখতে গিয়েছিল সে। আর সিনেমাটি দেখার পর আবেগ সামলাতে না পেড়ে  কেঁদে ভাসালো ছোট্ট মেয়েটি। কান্না ভেজা গলায় বারবার বলে চলেছে, “বজরঙ্গি ভাইজানকে আমার খুব ভালো লেগেছে। আমার বজরঙ্গি ভাইজান চাই।” সম্প্রতি এমনই এক ভিডিও ট্যুইটারে শেয়ার করেছেন কবীর খান। যা রীতিমতো ভাইরাল হয়ে উঠেছে নেট দুনিয়ায়।

তবে শুধু সিনে-প্রমীদের নয়, সলমনের এই ছবি চোখে জল এনে দিয়েছে স্বয়ং আমির খানেরও। ১৮ জুলাই মুম্বইয়ে ‘বজরঙ্গি ভাইজান’-এর স্পেশাল স্ক্রিনিং রেখেছিলেন সাল্লু। যেখানে মেয়ে ইরাকে নিয়ে মুভি দেখতে এসেছিলেন আমির খান। ছবিটি দেখে রীতিমতো ইমোশনাল হয়ে পড়েন নায়ক। চোখ মুছতে মুছতে জানিয়েছিলেন “এটা এখনও পর্যন্ত সলমনের সেরা ছবি”। তবে শুধু সলমন নয়, ছোট হাসালির অভিনয়েও মুগ্ধ তিনি।  আমিরের কথায় “ছোট মেয়েটি অসাধারণ। একেবারে আপনার হৃদয় ছুঁয়ে যাবে”।

বিনোদনের আরও খবর:

১. বজরঙ্গি’র লাভের টাকা কৃষকদের দিলেন ভাইজান

২. “ভাইজান”-কে ট্যাক্স ফ্রি করল উত্তরপ্রদেশ

৩. মাটিতে মিশলেন ভাইজান

ভিডিওটি দেখতে এই লিঙ্কে ক্লিক করুন:

বক্স-অফিসে এখন দাপিয়ে বেড়াচ্ছে ‘বজরঙ্গি ভাইজান”। মুক্তির তিন দিনের মাথায় টপকে ফেলেছে একশো কোটির গণ্ডি। পরিবার থেকে হারিয়ে যাওয়া একটি পাকিস্তানি মেয়েকে তাঁর ঘরে ফিরিয়ে দেওয়ার গল্প ‘বজরঙ্গি ভাইজান’। ছবিতে সলমন ও হার্ষালি ছাড়া রয়েছেন করিনা কাপুর ও নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকি।