নয়াদিল্লি: মহেন্দ্র সিং ধোনিকে নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় বিরাট কোহলির একটা পোস্ট, তাতেই নড়েচড়ে বসে ভারতীয় ক্রিকেটমহল৷ ক্রিকেটপ্রেমীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়ায় মুহূর্তে৷ শেষমেশ পরস্থিতি সামাল দিতে আসরে নামতে হয় নির্বাচক প্রধান এমএসকে প্রসাদকে৷ তাতেও অনুরাগীরা নিশ্চিন্ত না-হলে স্বয়ং ধোনি পত্নী সাক্ষিকে আশ্বস্ত করতে হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়৷

২০১৬ টি-২০ বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে জয়ের পর ধোনিকে কুর্নিশ জানানোর ঢংয়ে নিজের একটি ছবি টুইটার ও ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করে বিরাট লেখেন, ‘এমন একটা ম্যাচ, যা আমি কখনও ভুলব না৷ বিশেষ একটা রাত৷ এই মানুষটি আমাকে ফিটনেস টেস্ট নেওয়ার মতো দৌড় করাচ্ছিল৷’

আরও পড়ুন: অবসরে মেয়ে জিভার সঙ্গে জলকেলিতে মত্ত ধোনি

বিরাটের এই পোস্টটি মুহূর্তে ভাইরাল হয়ে যায় এবং জল্পনা শুরু হয়ে যায় মহেন্দ্র সিং ধোনির অবসর নিয়ে৷ বিশ্বকাপের পর থকে জাতীয় দলের বাইরে রয়েছেন ধোনি৷ নিজে থেকে ছুটি নিলেও নির্বাচকরা সামনের দিকে তাকাতে চায় বলে গুঞ্জন ভারতীয় বোর্ডের অন্দরমহলে৷ এই অবস্থায় কোহলির এমন পোস্ট ধোনির সম্ভাব্য অবসরের জল্পনায় ইন্ধন জোগায়৷

পরে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে গান্ধী-ম্যান্ডেলা সিরিজের জন্য ভারতীয় দল ঘোষণার পর নির্বাচক প্রধান এমএসকে প্রসাদ স্পষ্ট জানিয়ে দেন যে, তাঁর কাছে ধোনির অবসর প্রসঙ্গে কোনও আপডেট নেই৷ তিনি রীতিমতো বিস্ময় প্রকাশ করেন এমন প্রসঙ্গ উত্থাপিত হওয়ায়৷ প্রসাদ বলেন, ‘এ প্রসঙ্গে (ধোনির অবসর) আমার কাছে কোনও তথ্য নেই৷ এটা শুনে অবাক হচ্ছি৷’

আরও পড়ুন: BREAKING: বাদ পড়লেন রাহুল, টেস্ট দলে নতুন মুখ শুভমন

সকালে বিরাটের পোস্টের পর সারাদিন ধরে চলে গুজব৷ সন্ধ্যার দিকে সাক্ষি ধোনি একটি টুইটে সব জল্পনায় জল ঢেলে দেন৷ সাক্ষি তিনটি শব্দে লেখেন, ‘এটাকেই বলে গুজব!’