নয়াদিল্লি:  মঙ্গলবার ৩১ বছরের জন্মদিনে পা দিলেন ধোনি পত্নী। স্বামী মহেন্দ্র সিং ধোনির মতো ততটা জনপ্রিয় না হলেও তিনি কিন্তু সোশাল সাইটে কম জনপ্রিয় নন। ফ্যাশান জগতে তিনি মাত করতে পারেন তাবড় অভিনেত্রীদের। বিশ্বের অন্যতম খ্যাতনামা খেলোয়াড়ের স্ত্রী হওয়ায় তিনি সর্বদাই থাকেন লাইম লাইটে।

সোশাল সাইট ঘাটলে দেখা যাচ্ছে, জন্মদিনে আজ বাড়িতেই রয়েছেন তিনি। এখন পর্যন্ত যে ছবি সামনে এসেছে তাতে দেখা যাচ্ছে পোষ্যদের সঙ্গে সময় কাটাচ্ছেন ধোনি পত্নী। ১৯৮৮ সালের ১৯ নভেম্বর জন্ম সাক্ষীর। ২০১০ সালে ৪ জুলাই তাঁর সঙ্গে বিয়ে হয় প্রাক্তন ভারত অধিনায়কের। তাঁদের দুজনের সম্পর্ক প্রায়ই সোশাল মিডিয়ায় চর্চার বিষয় হয়ে ওঠে।

জন্মদিনে সাক্ষী যে ছবি তাঁর সোশাল অ্যাকাউন্টে শেয়ার করেছেন সেখানে দেখা যাচ্ছে, চার পোষ্যের সঙ্গে সময় কাটাচ্ছেন তিনি। হাতে বল নিয়ে সারমেয়দের সঙ্গে টাইম কাটাতে দেখা যাচ্ছে তাঁকে।

ইন্টারনেটে রীতিমতো ভাইরাল সাক্ষী ধোনি। প্রায়ই তাঁর কিছু ছবি সোশাল মিডিয়ায় আলোড়ন সৃষ্টি করে। নিজের জন্মদিনে মেয়ে জিভার জন্মের স্মৃতিচারণা করেন তিনি। জিভার জন্ম ২০১৫ সালের ৬ জানুয়ারি। তখন বিশ্বকাপের সময়, প্রাকটিসের ক্ষতি যাতে না হয়, সেকারণে তখন ফোন ব্যবহার করতেন না ধোনি। মেয়ে হওয়ার খবর তাঁর কাছে পৌঁছে দেওয়ার জন্য একজন দৌড়ে গিয়ে ফোন করেন সুরশ রায়নাকে। রায়নাই খুশির খবর দেন ধোনিকে।

অন্যদিকে দীর্ঘদিন জাতীয় দলের জার্সিতে দেখা যায়নি মহেন্দ্র সিং ধোনিকে। হঠাৎ করেই টিম ইন্ডিয়ার সঙ্গেই দূরত্ব রাখছেন তিনি। প্রথমে প্রায় ১ মাস খেলা ছেড়ে সেনাবাহিনীর জন্য সময় দেন তিনি। সেখান থেকে ফিরে আপাতত পরিবারের সঙ্গেই সময় কাটাচ্ছেন তিনি। ইডেনে ঐতিহাসিক টেস্টেও আমন্ত্রণ করা হয়েছে প্রাক্তন ভারত অধিনায়ককে। কিন্তু তিনি আদৌ আসবেন কিনা সে ব্যাপারে কোনও নিশ্চয়তা নেই।

তবে তাঁর ভক্তদের বিশ্বাস, তিনি আবার শিগগিরিই কোনও একদিন ফিরবেন ভারতীয় দলের জার্সি হাতে। অপেক্ষায় ভক্তরা।