মুম্বই: কেন্দ্রের নতুন তিন কৃষি আইন এর বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করছেন দেশের কৃষকরা। তাদের দাবি কেন্দ্রকে এই তিন আইন প্রত্যাহার করতে হবে। এদিকে অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউত এই কৃষকদের আন্দোলন নিয়ে একের পর এক বিরূপ মন্তব্য করে চলেছেন টুইটারে। আর তাই শিরোমনি অকালি দলের নেতা মনজিন্দার সিং শীর্শা শুক্রবার তাই কঙ্গনাকে একটি আইনি নোটিশ পাঠালেন।

কৃষকদের প্রতিবাদ মিছিলে এক বৃদ্ধা কৃষককে হাঁটতে দেখা যায়। সেই বৃদ্ধা সম্পর্কে কুরুচিকর মন্তব্য করেছেন কঙ্গনা। তাই পরের দিনই অভিনেত্রীকে আইনি নোটিশ পাঠিয়েছেন মনজিন্দর। কঙ্গনা লিখেছেন, “একজন কৃষকের বয়স্ক মা সম্পর্কে কঙ্গনা বলেছেন মহিলাকে ১০০ টাকার বিনিময়ে পাওয়া যায়। আর সেই জন্যই আমরা তাকে আইনি নোটিশ পাঠিয়েছি।”

এছাড়াও কঙ্গনা এই কৃষক আন্দোলন কে দেশবিরোধী বলে দাবি করেছেন। আর তাই কঙ্গনার থেকে শর্তবিহীন আমার দাবি করেছেন শিরোমণি অকালি দলের নেতা। এছাড়াও কঙ্গনার বিরুদ্ধে ভুয়ো খবর ছড়ানোর অভিযোগ রয়েছে। যে বৃদ্ধাকে মিছিলে হাঁটতে দেখা গিয়েছে তিনি নাকি শাহীনবাগের দাদি বিলকিস বানো। এমনই দাবি করেছেন কঙ্গনা। আর তারপরেই নেটিজেনরা তার ওপর ক্ষুব্ধ হন এবং কটাক্ষ করেন। চাপে পড়ে এসেই টুইট ডিলিট করেন অভিনেত্রী।

নিশ্চিত না হয়েই কঙ্গনা ওই বৃদ্ধাকে নিশানা করে টুইট করেন, “হাহাহা। ইনি তো সেই দাদি, যিনি টাইম ম্যাগাজিনের প্রতিবেদনে জায়গা করে নিয়েছিলেন সবচেয়ে প্রভাবশালী ভারতীয় হিসেবে। এঁকে ১০০ টাকার বিনিময় ভাড়া পাওয়া যায়।” কঙ্গনার এই টুইট দেখেই চটে যান নেটিজেনরা।

দুই বৃদ্ধা আলাদা। এটাই নিশ্চিত না হয়ে ভুল খবর ছড়ানোর অভিযোগ ওঠে অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে। যদিও তড়িঘড়ি সেই টুইট ডিলিট করে দেন কঙ্গনা রানাউত। বিশেষ করে শাহীনবাগ আন্দোলনের এই দাবির সম্পর্কে এমন আপত্তিকর মন্তব্য’ করায় নেটিজেনদের রোষের মুখে পড়তে হয় তাকে।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

কোনগুলো শিশু নির্যাতন এবং কিভাবে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো যায়। জানাচ্ছেন শিশু অধিকার বিশেষজ্ঞ সত্য গোপাল দে।