নয়াদিল্লি: বহুচর্চিত স্যাকরেড গেমস ২ এর জন্য এবার গ্যাড়াকলে বলিউডের পরিচালক অনুরাগ কাশ্যপ। এফআইআর দায়ের হয়েছে তাঁর বিরুদ্ধে। অভিযোগ, স্যাকরেড গেমস ২ শিখদের আবেগকে আঘাত করেছে।

জানা গিয়েছে, বিজেপির মুখপাত্র তাজিন্দর বজ্ঞা পরিচালক অনুরাগ কাশ্যপের বিরুদ্ধে পুলিশের কাছে অভিযোগ করেছেন, এই কাজ ইচ্ছাকৃতভাবে শিখ সেন্টিমেণ্টকে আঘাত করেছে স্যাকরেড গেমস। একটি সিনে দেখা গেছে যেখানে শিখদের ধর্মীয় চিনহ কড়া’র প্রতি অসম্মান করা হয়েছে।

বিজেপির মুখপাত্র ছবির যে অংশের কথা তাঁর করা অভিযোগে তুলে ধরেছেন সেখানে অভিনেতা সঈফ আলি খানকে দেখা গেছে। তিনি একজন শিখ পুলিশের চরিত্রে অভিনয় করেছেন। সেখানে দেখা গেছে তিনি তাঁর কড়া খুলে সমুদ্রে ছুঁড়ে ফেলে দিচ্ছেন। এই সিন-ই তৈরি করেছে তুলেছে জটিলতা।

মুখপাত্র তাজিন্দর বজ্ঞা লিখিত অভিযোগে জানিয়েছেন, “কড়া শিখ ধর্মের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ অংশ। যা তাদের বিশ্বাসের সঙ্গে অঙ্গাঙ্গিভাবে যুক্ত ও সবচেয়ে বেশি শ্রদ্ধার একটি জিনিস।” কড়ার অপমানে অনুরাগ কাশ্যপের বিরুদ্ধে এফআইআর বলে জানা গিয়েছে।

এই বিজেপি নেতা ভারতীয় দণ্ডবিধির ২৯৫-এ, ১৫৩, ১৫৩-এ, ৫০৪ ও ৫০৫ ধারাতে বিখ্যাত এই প্রিচাল্কের বিরুদ্ধে কড়া শাস্তি চেয়েছেন। এই একই প্রসঙ্গে আকালি দাল সাংসদ মজিন্দর সিং শীর্ষ অনলাইন সাইট নেটফ্লিক্সকে হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন যাতে ওয়েব সিরিজের ওই সিনটি বাদ দিয়ে দেওয়া হয়।

তাজিন্দর বজ্ঞার অভিযোগে বারংবার উঠে এসেছে, ইচ্ছাকৃতভাবে ওয়েব সিরিজে হিন্দু মাইনরিটি দল শিখদের অপমান করা হয়েছে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করার উদ্দেশ্যে। শান্তি নষ্ট করছে। পাশাপাশি এই ঘটনা আরও ধর্মের মানুষদের মধ্যে বিদ্বেষ তৈরি করতে পারে। এটা শান্তি বিঘ্নিত করার পরিকল্পিত একটি প্রচেষ্টা। এইরকম দৃশ্য শিখদের বিস্বাসে আঘাত করেছে বলেও তিনি জানিয়েছেন।

পরিচালক অনুরাগ কাশ্যপ এর আগেও বেশ কয়েকবার বিতর্কের কেন্দ্রে এসেছেন। তিনি গত সপ্তাহেই পরিবারের লোকজনদের সুরক্ষার কথা ভেবেই তাঁর ট্যুইটার অ্যাকাউন্ট ডিলিট করে দিয়েছেন।