নয়াদিল্লি: পুলওয়ামায় সন্ত্রাসবাদী হামলায় শহিদ জওয়ানদের পরিবারের পাশে দাঁড়াতে অভিনব উদ্যোগ গ্রহণ করল দিল্লি ম্যারাথন কর্তৃপক্ষ। ম্যারাথনে অংশগ্রহণকারী ১৮,০০০ দৌড়বিদের প্রত্যেকের মাথাপিছু ১০০ টাকা করে অর্থদান করে তা শহিদ জওয়ান পরিবারের হাতে তুলে দেবে ম্যারাথন কর্তৃপক্ষ। শুধু তাই নয়, হাজার হাজার দৌড়বিদের সঙ্গে দিল্লি ম্যারাথনে উপস্থিত থাকবেন মাস্টার ব্লাস্টার সচিন রমেশ তেন্ডুলকর।

তবে দৌড় নয় বরং ম্যারাথন শুরুর আগে প্রতিযোগীদের সঙ্গে পুশ-আপ করতে দেখা যাবে ভারতীয় ক্রিকেটের আইকনকে। #KeepMoving Push-up চ্যালেঞ্জের অংশ হিসেবে ৫-১০টি পুশ-আপ করতে দেখা যাবে সচিনকে। রবিবার নয়াদিল্লির জওহরলাল নেহরু স্টেডিয়ামে ম্যারাথনে অংশগ্রহণকারী ১৮,০০০ দৌড়বিদকে ভাগ করা হয়েছে কয়েকটি ক্যাটেগরিতে। ফুল ম্যারাথনে অংশ নেবেন ২০০০জন, হাফ ম্যারাথনে অংশ নেবেন ৬০০০জন, ১০ কিমি ম্যারাথনে ৫,৫০০ জন এবং ৫ কিমি স্বচ্ছ ভারত রানে অংশ নেবেন ৪,৫০০ জন প্রতিযোগী।

কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে একটি বিবৃতিতে দাবি করা হয়েছে, #KeepMoving Push-up চ্যালেঞ্জের অংশ হিসেবে সচিন তেন্ডুলকরের এই ম্যারাথনে অংশগ্রহণ ভীষণই তাৎপর্যপূর্ণ। যা প্রতিযোগীদের উদ্বুদ্ধ করতে সাহায্য করবে। একইসঙ্গে শহিদ জওয়ান পরিবারের পাশে দাঁড়িয়ে আমাদের এই প্রয়াস অর্থবহ হয়ে উঠবে। পুলওয়ামার ঘটনায় শহিদ পরিবারের সাহায্যার্থে প্রতিযোগীদের মাথাপিছু ১০০ টাকা করে অর্থদান করে তা রিলিফ ফান্ডে পৌঁছে দেওয়া হবে।

ম্যারাথন কমিটির এক গুরুত্বপূর্ণ সদস্য ভিগনেশ সাহানের কথায়, ‘পুলওয়ামায় ভয়ংকর জঙ্গি হামলার সাক্ষী থেকেছে গোটা দেশ। ঘটনায় শহিদ জওয়ানদের পরিবারের প্রতি আমাদের সমবেদনা রয়েছে। ৪০ জন শহিদ জওয়ান ও তাদের পরিবারের পাশে দাঁড়িয়ে ম্যারাথনে অংশগ্রহণকারী ১৮,০০০ প্রতিযোগীকে উপস্থিত থেকে উৎসাহ প্রদান করবেন সচিন তেন্ডুলকর। একইসঙ্গে #KeepMoving Push-Up Challenge-র ও অংশীদার হবেন তিনি।’

Proshno Onek II First Episode II Kolorob TV