বার্লিন: ২৪ বছরের দীর্ঘ আন্তর্জাতিক কেরিয়ারে ৬ বারের প্রচেষ্টায় সচিন তেন্ডুলকর শেষমেশ বিশ্বকাপ হাতে তোলেন ২০১১ সালে৷ ৯ বছর পর বিশ্বকাপ জয়ের ঐতিহাসিক মুহূর্তের জন্য ঐতিহ্যশালী লরিয়াস ক্রীড়া পুরস্কার জিতলেন মাস্টার ব্লাস্টার৷

আরও পড়ুন: বিরাটের জন্য সোশ্যাল মিডিয়ায় আবেগঘন অনুষ্কা

সোমবার রাতে বার্লিনে বসে লরিয়াস স্পোর্টস অ্যাওয়ার্ডসের আসর৷ গত দু’দশকে খেলাধুলোর সেরা মুহূর্তের স্বীকৃতি হিসাবে সেই আসরেই পুরস্কৃত করা হয় তেন্ডুলকরকে৷ যদিও সচিনের বিশ্বকাপ হাতে নেওয়ার মুহূর্তকে নয়, লরিয়াস অ্যাওয়ার্ডসে স্বীকৃতি দেওয়া হয় বিশ্বকাপ জয়ের পর সচিনকে সতীর্থদের কাঁধে নিয়ে ঘোরার মুহূর্তকে৷

আরও পড়ুন: কোহলি এখন ১০ নম্বরই

২০১১ সালে বিশ্বকাপ ছিল সচিনের কেরিয়ারের শেষ আইসিসি টুর্নামেন্ট৷ সেটা আগে থেকেই জানা ছিল সতীর্থদের৷ বিশ্বকাপ জয়ের ঠিক পরেই বিরাট কোহলি, ইউসুফ পাঠান, সুরেশ রায়নারা কাঁধে তুলে নেন সচিনকে৷ তাঁর হাতে ধরা ছিল জাতীয় পতাকা৷ এই বিশেষ মুহূর্তটাকেই নতুন শতকের সেরা ক্রীড়ামুহূর্ত হিসেবে চিহ্নিত করে লরিয়াস৷

আরও পড়ুন: লো স্কোরিং ম্যাচে উত্তেজক জয় ভারতের

অনুষ্ঠানে সচিনের হাতে পুরস্কার তুলে দেন বিশ্বকাপজয়ী অজি অধিনায়ক স্টিভ ওয়া৷ পুরস্কারের জন্য সচিনের নাম ঘোষণা করেন টেনিসের কিংবদন্তি বরিস বেকার৷ পুরস্কার হাতে নেওয়ার পর সচিন বলেন, ‘এটা একটা অবিশ্বাস্য অনুভূতি৷ বিশ্বকাপ জয়ের অনুভূতি ভাষায় প্রকাশ করা সম্ভব নয়৷ খেলাধুলোর প্রকৃত ক্ষমতা বোঝা যায় বিশ্বকাপের মতো এমন বড় ইভেন্টগুলিতেই৷ খুব কম ইভেন্ট হয়, যেগুলিকে কেন্দ্র করে গোটা দেশ মেতে ওঠে৷’