মুম্বই: সচিন তেন্ডুলকরকে চ্যালেঞ্জ করে যে এভাবে বিপাকে পড়তে হবে বোধহয় স্বপ্নেও ভাবেননি যুবরাজ সিং। সচিন তেন্ডুলকরের প্রতি যে তিনি কতো শ্রদ্ধাশীল সেটা বিভিন্ন সময় বিভিন্নভাবে বুঝিয়েছেন যুবি। সেই শ্রদ্ধা থেকেই তৃতীয় দফা লকডাউনের মাঝে সম্প্রতি ব্যাটিং গ্রেটকে একটি চ্যালেঞ্জ করে বসেছিলেন ছয় ছক্কার নায়ক। কিন্তু তেন্ডুলকর যা পালটা দিলেন তাতে যুবরাজ শেষ অবধি বলতে বাধ্য হলেন যে আমি ভুল মানুষকে চ্যালেঞ্জ করে বসেছি।

বৃহস্পতিবার সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও পোস্ট করে তাঁর জাতীয় দলের তিন সতীর্থকে ‘কিপ ইট আপ’ চ্যালেঞ্জে স্বাগত জানান যুবি। ভিডিওতে ব্যাট হাতে একটি ক্রিকেট বল নিয়ে জাগলিং করতে দেখা যায় প্রাক্তন তারকা ব্যাটসম্যানকে। নিজের জাগলিং শেষ হলে ভিডিও শেষে রোহিত শর্মা, সচিন তেন্ডুলকর এবং হরভজন সিংকে সেই চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করতে বলেন ‘পঞ্জাব কা পুত্তর’।

শনিবার যুবির সেই চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করে পালটা একটি ভিডিও পোস্ট করেন মাস্টার-ব্লাস্টার। যদিও তাঁর চ্যালেঞ্জ গ্রহণের পদ্ধতি ছিল একটু আলাদা। চোখ বেঁধে ভিডিওতে যুবরাজের চ্যালেঞ্জ নিতে নিতে সচিন বলেন, ‘যুবি তোমার চ্যালেঞ্জটা খুবই সহজ ছিল তাই আমি তোমার জন্য একটু কঠিন করে দিলাম চ্যালেঞ্জটা। আর এই চ্যালেঞ্জটার জন্য আমি কেবল তোমাকেই আমন্ত্রণ করছি বন্ধু।’ চোখ বেঁধে অনায়াস ভঙ্গিতে মাস্টার-ব্লাস্টারের চ্যালেঞ্জ গ্রহণের সেই ভিডিও দেখে চোখ কপালে ওঠার জোগাড় নেটিজেনদের।

একই অবস্থা যুবরাজেরও। সচিনের ভিডিওর প্রত্যুত্তরে যুবি স্বীকার করে নেন যে তিনি ভুল মানুষকে তাঁর চ্যালেঞ্জ নেওয়ার জন্য আমন্ত্রণ করেছিলেন। সচিনের ভিডিও দেখে যুবরাজ লেখেন, ‘আমি জানি কিংবদন্তি তোমায় চ্যালেঞ্জ দেওয়াটা আমার ভুল হয়েছে। তুমি যে পালটা চ্যালেঞ্জটা আমায় দিলে ওটার জন্য আমার এক সপ্তাহ সময় লাগবে তবে আমি চেষ্টা করব।’

তৃতীয় দফা লকডাউনের শেষ পর্যায়ে এসে যুবরাজ-সচিনের এমন চ্যালেঞ্জ-পালটা চ্যালেঞ্জ বেশ মনে ধরেছে অনুরাগীদের। তবে সচিনের ভিডিও দেখে নেটাগরিকরা বলছেন, ‘সত্যিই যুবরাজ চ্যালেঞ্জটা বোধহয় ভুল মানুষকে করে ফেলেছেন’।

কলকাতার 'গলি বয়'-এর বিশ্ব জয়ের গল্প