স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতাঃ বৃহস্পতিবার বিধাননগরের মেয়র পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছেন সব্যসাচী দত্ত। অনাস্থা এড়াতেই এদিন মেয়র পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছেন তিনি। আর তারপরেই তিনি সোজা চলে আসেন করুণাময়ী সংলগ্ন ওয়াই চ্যানেলে, শিক্ষকদের অনশন স্থলে। সেখানে গিয়ে নাম না করে শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে একহাত নেন সদ্য প্রাক্তন মেয়র। এমনকি তিনি বলেন, “শিক্ষকরা অনশনে, ঠাণ্ডা ঘরে মন্ত্রী।”

১২ জুলাই থেকে অনশনে বসেছেন উস্থি শিক্ষক সংগঠনের সদস্যরা। নিজেদের দাবির সমর্থনে করুণাময়ী সংলগ্ন ওয়াই চ্যানেলে অবস্থানে বসেছেন তাঁরা। প্রায় ২,৫০০ শিক্ষক সামিল হয়েছেন অবস্থানে। মূলত পিআরটি স্কেলে বৈষম্য সমতায় আনতেই তাদের এই অবস্থান। তাছাড়া তাদের যে ১৪ জন শিক্ষককে বহিস্কার করা হয়েছে তাঁদের ফিরিয়ে আনার দাবিও রয়েছে শিক্ষকদের।

এদের মধ্যে ২০জন শিক্ষক ১৩ জুলাই থেকে সামিল হয়েছিলেন অনশনে। যে কারণেই একে একে অসুস্থ্ হয়ে পড়েন অনশনকারী শিক্ষকরা। এদিন শিক্ষকদের অনশন সাত দিনে পড়ল। আর এদিনই শিক্ষকদের সঙ্গে দেখা করতে অবস্থান মঞ্চে যান বিধাননগরের সদ্য প্রাক্তন মেয়র সব্যসাচী দত্ত। গিয়েই শিক্ষকদের শারীরিক অবস্থার খোঁজ নিলেন তিনি। শিক্ষকদের অনশনকে নৈতিক সমর্থন জানানোর পাশাপাশি এদিন শিক্ষামন্ত্রীর নাম না করে তাকে সব্যসাচীর খোঁচা, “শিক্ষকরা অনশনে, ঠাণ্ডা ঘরে মন্ত্রী।”

তার কথায়, বিগত কয়েক দিন ধরেই শিক্ষকরা অনশন করছেন এখানে। অনতি দূরেই রয়েছে শিক্ষামন্ত্রীর দফতর। তবুও তিনি একবারের জন্যও আসেন নি শিক্ষকদের সঙ্গে দেখা করতে। শিক্ষকদের পাশে থাকার আস্থা দেন তিনি। বলেন শাসনের নামে শোষণ চলছে।

এছাড়াও শিক্ষকদের অসুবিধার কথা তুলে ধরেন সব্যসাচী। বলেন চরম অস্বস্তির মধ্যে দিন কাটাচ্ছেন শিক্ষকরা। বলেন বাঁচার ন্যূনতম উপকরণ টুকুও পাচ্ছেন না শিক্ষকরা। পানীয় জল নেই শিক্ষকদের। নেই শৌচাগারও।