বিখ্যাত কার্টুন পর্ন চরিত্র সবিতা ভাবিকে চেনেন নিশ্চয়ই? মনে মনে দুষ্টু হাসি হাসছেন তো? তা সেই সবিতা ভাবির মানবী চরিত্রকে চেনেন কি? সবিতা বৌদির আসল নাম রোজলিন খান৷ তিনি এই চরিত্রের পাশাপাশি মডেলিং জগতেও বেশ ভালই নাম করে নিয়েছেন৷

সেই রোজলিনই দোলের প্রাক্কালে সমুদ্র সৈকতে মজলেন রঙের খেলায়৷ শুধু তাই নয় গোলাপী বিকিনি পড়ে, গায়ে গোলাপি রঙ মেখে সমুদ্রের ঢেউয়ে গা ভাসিয়ে দিলেন৷ গায়ে যে রঙ মেখেছিলেন তা নাকি এক্কেবারে ইকোফ্রেন্ডলি এবং এই রঙ পানের অযোগ্য জল দিয়ে তৈরি তাই জল খরচও হল না, আর সমুদ্র বেছে নেওয়ার কারণ রঙের জন্য যাতে বাড়ির বাথরুমের জল বেফালতু খরচ না হয়৷

রোজলিন জানিয়েছেন, তিনি নাকি শরীরে রঙ মাখতে খুব ভালবাসেন, আর জল নষ্ট করা তার এক্কেবারে নাপসন্দ৷ এমন কান্ড ঘটিয়ে গোটা সমাজকে নাকি সামাজিক বার্তা দিলেন বলে মনে করছেন সবিতা ভাবি থুরি রোজলিন৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।

Comments are closed.