নয়াদিল্লি: রাজস্থান রয়্যালয়ের হয়ে খেলার সময় ভারতের কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান রাহুল দ্রাবিড়কে গালিগালাজ করেছিলেন শ্রীসন্থ৷ সম্প্রতি প্রকাশিত এক বইয়ে এমন বিস্ফোরক তথ্য ফাঁস করেছেন রাজস্থানের মেন্টাল কন্ডিশানিং কোচ প্যাডি আপটন৷

ভারতের প্রাক্তন মনোবিদ ও রাজস্থান রয়্যালস দলে ২০১৩ সাল থেকে যুক্ত থাকা প্যাডি আপটন ‘এ বেয়ার ফুট কোচ’ বইয়ে আইপিএল স্পট ফিক্সিং বিতর্ক নিয়ে নিজের মন্তব্য জানিয়েছেন৷ বইয়ের সেই অধ্যায়তেই প্যাডি লিখেছেন, ‘২০১৩ আইপিএল স্পট ফিক্সিং কেলেঙ্কারিতে জড়িয়ে গ্রেফতার হওয়ার ২৪ ঘন্টা আগেই শ্রীসন্থকে দল থেকে বরখাস্ত করা হয়েছিল৷ অসভ্য আচরণের জন্যই তাঁকে সেসময় দল থেকে ছেঁটে ফেলা হয় ৷

আরও পড়ুন- সৌরভ-শ্রেয়সদের কপালে ভাঁজ, আইপিএল থেকে ছিটকে গেলেন রাবাদা

সেই প্রসঙ্গে নিজের বইয়ে প্যাডি আরও লিখেছেন, ‘কেলেঙ্কারি ফাঁস হওয়ার আগে রাজস্থানের হয়ে এক ম্যাচে তাঁকে দলের বাইরে রাখা হয়েছিল৷ দল থেকে বাদ পড়তেই সেই সময়ে রাজস্থান দলের কাপ্তান রাহুল দ্রাবিড়ের উপর চটেছিলেন শ্রীসস্থ৷ এরপরই ড্রেসিংরুমে দ্রাবিড়ের সঙ্গে অসভ্য আচরণ ও গালিগালাজ করে তাঁর দিকে তেড়ে গিয়েছিলেন দক্ষিণী পেসার৷ এর ঘটনার পরই শ্রীসন্থকে নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিয়ে তাঁকে ছেঁটে ফেলেছিল ফ্রাঞ্চাইজি৷ দল থেকে ছেঁটে ফেলার পরের রাতেই ১৬ মে, ২০১৩ আইপিএল স্পট ফিক্সিং কেলেঙ্কারিতে জড়িয়ে গ্রেফতার হন শ্রীসন্থ৷

আরও পড়ুন- বিশ্বকাপেও ‘ক্ষুধার্ত’ ওয়ার্নারকে পেতে প্রত্যয়ী ফিঞ্চ

বিতর্কিত এপিসোড নিয়ে আপটন আরও লিখেছেন, ‘শ্রীসন্থ প্রতিদিনই কাপ্তান দ্রাবিড় ও আমার সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করত৷ শ্রীসন্থের খারাপ আচরণের কারণেই ওকে দল থেকে বরখাস্ত করতে বাধ্য হয় রাজস্থান থিঙ্কট্যাঙ্ক৷’
দক্ষিণী পেসার অবশ্য আপটনের মন্তব্যকে অস্বীকার করে দলের কন্ডিশানিং কোচ প্যাডি আপটনকে মিথ্যেবাদী বলে অভিযোগ করেছেন৷

প্রসঙ্গত ২০১৩ সালে আইপিএল স্পট ফিক্সিং কেলেঙ্কারিতে নাম জড়ানোয় রাজস্থানের তিন ক্রিকেটার শ্রীসন্থ, অজিত চান্ডিলা ও অঙ্কিত চাভানকে ক্রিকেট থেকে আজীবন নির্বাসনে পাঠায় ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড৷

আরও পড়ুন- বিশ্বকাপে ব্যাটিং পিচের ভবিষ্যদ্বাণী সচিনের