মস্কো: আন্তর্জাতিক বাজারে কম করেও ২০ মার্কিন ডলার দাম হবে। ডোজ পিছু ১০ ডলার। দুবার নিতে হবে করোনার টিকা স্পুটনিক ভি ( স্পুটনিক ফাইভ)। রুশ স্বাস্থ্যমন্ত্রক কে উদ্ধৃত করে সংবাদ সংস্থা তাস জানাচ্ছে এই খবর।

করোনার রুশ টিকার দুটি ডোজের ভারতীয় মুদ্রায় দাম পড়ছে হাজার টাকার একটু বেশি। মারাত্মক সংক্রামক করোনাভাইরাস থেকে বাঁচতে এই পরিমাণ টাকা খরচ করতে হবেই। তবে সরকারি উদ্যোগে ভর্তুকি কতটা মিলবে তা এখনও পরিষ্কার নয়।

তাস আরও জানাচ্ছে, রাশিয়ার তৈরি করোনাভাইরাসের টিকা ১ বিলিয়ন ডোজ তৈরি করা হচ্ছে। রুশ জনগণ এই টিকা পাবেন বিনামূল্যে। তবে এই টিকার আন্তর্জাতিক বাজার মূল্য আসতে চলা আরও টিকার তুলনায় সস্তা বলেই দাবি করেছে রাশিয়া। রুশ স্বাস্থ্যমন্ত্রকের আরও দাবি, মস্কো এই টিকার দাম আরও কমানোর চেষ্টা করছে যাতে সারা বিশ্বের লোক সহজেই কিনতে পারেন।

মঙ্গলবার নিজেদের টিকা ৯৫ শতাংশেরও বেশি কার্যকর বলে দাবি করেছে রাশিয়ার স্বাস্থ্য মন্ত্রক। স্পুটনিক-৫ টিকার প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান একই দাবি করেছে।

অন্যদিকে অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের টিকা ৭০ শতাংশ আবার সঠিক নিয়মে ডোজ প্রয়োগে ৯০ শতাংশ কার্যকর বলে দাবি করেছে প্রস্তুতকারক সংস্থা অ্যাস্ট্রেজেনেকা।

এছাড়া মার্কিন ওষুধ প্রস্তুতকারী কোম্পানি ফাইজার ও এর জার্মান পার্টনার বায়োএনটেক দাবি করেছে নিজেদের টিকা ৯৫ শতাংশ কার্যকর। আবার আরেক মার্কিন কোম্পানি মডার্নার দাবি, তাদের টিকা ৯৪ দশমিক ৫ শতাংশ কার্যকরী। তবে এই টিকার মূল্য এখনো জানানো হয়নি।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

কোনগুলো শিশু নির্যাতন এবং কিভাবে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো যায়। জানাচ্ছেন শিশু অধিকার বিশেষজ্ঞ সত্য গোপাল দে।