মস্কো: বিশ্বজুড়ে এই মুহূর্তে চলছে করোনা মহামারী। আর তার জেরে একাধিক দেশে জারি করা হয়েছে লক ডাউনের। পাশপাশি একাধিক দেশের স্বাস্থ্য কর্মী এবং চিকিৎসকেরা করোনা সংক্রমিত রোগীদের বাঁচানোর জন্য আপ্রাণ চেষ্টা করে চলেছেন। কিন্তু রোগীদের চিকিৎসা করার আগে নিরাপত্তার খাতিরে তাদেরকেই পরতে হচ্ছে পিপিই কিট। যাতে তারা নিরাপদ থাকেন। আর এই অবস্থাতে স্বচ্ছ পিপিই কিটের ভেতরে অন্তর্বাস পরে কাজে যোগ দেওয়াতে বিতর্কে জড়ালেন রাশিয়ার এক হাসপাতালের নার্স।

ওই নার্স রাশিয়ার তুলা হাসপাতালে কর্মরত। তিনি ওইভাবেই হাসপাতালের মেল ওয়ার্ডে গিয়ে কাজ করছিলেন। কিন্তু সেখানে থাকা কোন রোগী ওই নার্সের ছবি তুলে সোশ্যাল মিডিয়াতে পোস্ট করলে তা দ্রুত ভাইরাল হয়ে যায়। তবে এই বিষয় নিয়ে এখনও হাসপাতাল কতৃপক্ষের তরফে কোন মন্তব্য করা হয়নি। তবে ইতিমধ্যে অইভাবে তিনি কে কাজে যো দিলে তা নিয়েও প্রশ্ন উঠছে। তবে ওই নার্স জানিয়েছিলেন অত্যাধিক গরম লাগার কারণেই তিনি ওভাবে পিপিই কিট পরে কাজে যোগ দিয়েছিলেন।

তিনি এও জানিয়েছিলেন যে তিনি বুঝতে পারেননি ওই পিপিই কিট এতটাই স্বচ্ছ যে তাঁর অন্তর্বাস বোঝা যাবে। কিন্তু তিনি কাজে এতটাই ব্যস্ত ছিলেন সেদিকে খেয়াল করেননি। তবে জানা গিয়েছে স্বাস্থ্য দফতরের তরফ থেকে তাঁর বিরুদ্ধে পদক্ষেপ গ্রহন করা হতে পারে। তবে ওই নার্স এই বিষয় নিয়ে সাধারণের সামনে মুখ খোলেননি। তবে বিষয়টি নিয়ে অনেকেই মস্করা করা শুরু করেছেন। পাশাপাশি অনেকেই তাঁর পাশে দাঁড়িয়েছেন। ইতিমধ্যে রাশিয়াতেও ক্রমেই বেড়েছে করোনা সংক্রমণের সংখ্যা। প্রায় তিন লক্ষের বেশি মানুষ ইতিমধ্যে আক্রান্ত হয়েছেন। পাশপাশি মারা গিয়েছেন আড়াই হাজারের বেশি মানুষ।

কলকাতার 'গলি বয়'-এর বিশ্ব জয়ের গল্প