চেন্নাই: সিংহের ডেরায় সিংহগর্জন৷ এক বছর আগে এই কাণ্ডই ঘটিয়েছিলেন নাইটদের তারকা অল-রাউন্ডার আন্দ্রে রাসেল৷

১০ মার্চ, ২০১৮ চিপকে সেদিন ধোনির কপালে চিন্তার ভাঁজে ফেলেছিলেন ক্যারিবিয়ান এক পাওয়ার হাউস৷ ৩৬ বল খেলে ৮৮ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেন রাসেল৷ ইনিংস সাজানো ছিল ১১টি ছয় আর ১টি চার দিয়ে৷ স্ট্রাইক রেট ২৪৪.৪৪ প্লাস৷ চেন্নাই সুপার কিংসকে নিয়ে তৈরি এক ডকুমেন্টরিতে ধোনি রাসেলের সেই ইনিংসের কথা উল্লেখ করে নিজেই বলেছেন, ‘উইকেটের পিছন থেকে রাসেলকে ছয় হাঁকাতে দেখে ক্লান্ত হয়ে পড়েছিলাম৷ রাসেল কিন্তু থামেনি৷ মনে মনে ভাবছিলাম, ইনিংস কখন শেষ হবে!’

আরও পড়ুন- দুরন্ত ফর্মে থাকলেও রাসেলকে দলে রাখতে আগ্রহী নয় বিবিএল ফ্র্যাঞ্চাইজি

দেখে নিন রাসেলের সেই বিধ্বংসী ইনিংস নিয়ে ধোনি নিজে কী বলেছেন

ক্যালেন্ডার বলছে, আজ দিনটা ৯ মার্চ৷  এক বছর পর মঞ্চ সেই চিপক৷ আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দুতে সেই রাসেল৷ এক বছরের মাথায় চিপকে ফের রাসেল ধমাকা দেখা যায় কিনা, সেটাই এখন দেখার৷

চলতি মরশুমে রাসেলের যা বিধ্বংসী ফর্ম, ধোনির কপালে চিন্তার ভাঁজ ফেলার পক্ষে যথেষ্ট৷ নাইটদের পাঁচ ম্যাচের মধ্যে চারটেতে খেলার সুযোগ পেয়েছেন আন্দ্রে৷ সেখানে হায়দরাবাদ, পঞ্জাব, দিল্লি ও ব্যঙ্গালোরের বিরুদ্ধে তাঁর ব্যক্তিগত সংগ্রহ যথাক্রমে অপরাজিত ৪৯ (১৯ বলে), ৪৮ (১৭ বলে), ৬২ (২৮ বলে) ও অপরাজিত ৪৮ (১৩ বলে)৷ রাজস্থানের বিরুদ্ধে শেষ ম্যাচে ব্যাটিং, বোলিং কোনটাই করেননি তিনি৷

আরও পড়ুন- সানরাইজার্সকে হারিয়ে ‘থার্ড বয়’ কিংস ইলেভেন

অঙ্ক অবশ্য অন্য কথা বলছে, রাসেল ধামাকার পরও গত বছর চিপকে সেই ম্যাচে জয় তুলে নিতে পারেনি কেকেআর৷ ২০৩ তাড়া করতে নেমে এক বল বাকি থাকতে ম্যাচ জিতেছিল চেন্নাই৷ দুর্বল বোলিংয়ের জন্য অ্যাওয়ে ম্যাচে পয়ন্ট হারাতে হয়েছিল দীনেশদের৷ সেই পরিসংখ্যানই এদিন নাইটদেরও পাল্টা চিন্তায় রাখছে৷

আরও পড়ুন- জাড্ডু’র নতুন দাঁড়িতে মজে ধোনিরা