কলকাতা : বহু বছর ধরেই অভিযোগ উঠেছিল যে বাংলার এফএম রেডিও চ্যানেলগুলিতে বাংলা গান আর সেরকম ভাবে বাজানো হয় না। যত দিন যাচ্ছে তত যেন হিন্দি ভাষা বাংলার এফএম রেডিও চ্যানেল গুলিকে গ্রাস করে ফেলছে। সেখানে সারাদিন ৯০% সময় হিন্দি গান বাজানো হয় এবং রেডিও জকিরাও বেশিরভাগ সময় হিন্দিতেই কথা বলেন। এই ব্যাপারে বাংলা শিল্পী পক্ষ সংগঠন সম্প্রতি প্রতিবাদের আওয়াজ তুলেছে। তারা বাংলা গানের বিভিন্ন প্রথিতযশা শিল্পীকে এই বিষয়ে কিছু বার্তা দেওয়ার জন্য অনুরোধ জানিয়েছে। এর আগে তাদের অনুরোধে সাড়া দিয়ে বক্তব্য রেখেছিলেন বাংলা ব্যান্ড ভূমির অন্যতম সদস্য সৌমিত্র রায়। এবার রূপঙ্কর বাগচীও একই ব্যাপারে মুখ খুললেন।

রুপঙ্কর ভিডিও বার্তায় জানিয়েছেন। যে তিনি অনেকদিন ধরে দেখেছেন যে বাংলার এফএম রেডিও চ্যানেল গুলোতে হিন্দি গান বাজানো হয় এবং সব থেকে বড় কথা এখানকার যারা সঞ্চালকরা আছেন আছেন তারাও বাংলায় কথা বলেন না, তারা হিন্দিতেই বেশিরভাগ সময় শোগুলি পরিচালনা করেন। তিনি হিন্দি ভাষার বিরোধী নন, তিনি ছোটবেলা থেকেই হিন্দি গান শুনেই বড় হয়েছেন। কিন্তু পশ্চিমবাংলায় শুধু হিন্দি গান বাজানো হবে, বাংলা সেখানে স্থান পাবে না এটা মেনে নেওয়া যায় না। আমাদের বাংলা গানের ভান্ডার অতুলনীয়। রজনীকান্ত, অতুলপ্রসাদ, রবীন্দ্র সংগীত ও নজরুল সঙ্গীত এরকম মণিমাণিক্য পূর্ণ আমাদের বাংলা গানের রত্নভাণ্ডার। সেখানে এফএম রেডিও স্টেশনগুলি এই গানগুলি কেন বাজায় না তা রুপঙ্কর জানেন না। এই গানগুলি লোকে শোনে না বললে সেটা মেনে নেওয়া যায় না। লোককে গানগুলি শোনাতে হবে, এই গানগুলির ব্যাপারে মানুষকে শিক্ষিত করতে হবে, এমনটাই এই ভিডিও বার্তায় জানিয়েছেন রূপঙ্কর।

বহুদিন ধরেই বাংলা গানের শিল্পীদের স্বাধীন গান, বাংলা চলচ্চিত্রের গান এই এফ এম চ্যানেলগুলির মাধ্যমে একদমই শোনা যায় না।‌এর ফলে শ্রোতারা নতুন বাংলা গান নিয়ে কী কাজ হচ্ছে সেটা জানতে পারছেন না। ফলে একদিকে যেমন শ্রোতারা বঞ্চিত হচ্ছেন ঠিক অন্যদিকে শিল্পীরাও বঞ্চিত হচ্ছেন। এই অচলাবস্থারই প্রতিকার করতে এবার মাঠে নেমেছে বাংলা শিল্পী পক্ষ।

প্রশ্ন অনেক: তৃতীয় পর্ব