ঢাকা:  পদ্মা সেতু তৈরির জন্য লক্ষ শিশুর মাথা লাগার গুজব নিয়ে বাংলাদেশে ছড়িয়েছে আতঙ্ক৷ সোশ্যাল সাইটে এই গুজবের জেরে অনেকেই আতঙ্কিত৷ পরিস্থিতি নিয়ে মুখ খুললেন সেতু মন্ত্রী তথা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের৷ তিনি বলেন, সরকারকে বিপদে ফেলতে আন্দোলনে ও নির্বাচনে ব্যর্থ হয়ে বিরোধীরা এখন সরকারের বিরুদ্ধে অপপ্রচারে নেমেছে।

গুজবের জেরে ক্ষোভ প্রকাশ করেন অনেকে৷ তদন্তে নেমে বাংলাদেশ পুলিশের সাইবার বিভাগ ঢাকা, চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে কয়েকজনকে গ্রেফতার করে৷ ধৃতদের কয়েকজন জামাত ইসলামির ছাত্র সংগঠন ইসলামি ছাত্র শিবিরের সদস্য বলে জানা গিয়েছে৷

বৃহস্পতিবার এই গুজব ছড়ানো নিয়ে সাংবাদিকদের সেতুমন্ত্রী বলেন, প্রকাশ্যে সরকারবিরোধী আন্দোলনে বিরোধীরা দুর্বল৷ তাই তারা এমন অপপ্রচার চালাচ্ছে৷ পদ্মা সেতু তৈরি হচ্ছে বাংলাদেশের অর্থে৷ এই বিরাট প্রকল্পের দায়িত্বে সরকার৷ এটা বিরোধীরা সহ্য করতে পারছে না, গায়ে জ্বালা ধরছে। তাই তারা বলে লক্ষ মানুষের মাথা ও রক্তের প্রয়োজন।

একের পর এক গুজব নির্ভর ফেসবুক পোস্ট ছড়িয়েছে বাংলাদেশে৷ তাতে ছড়ানো হয়েছে- মানুষের মাথা কেটে পদ্মা সেতুর স্তম্ভের নিচের ভিতে রাখা হচ্ছে৷ এর জন্য শতাধিক মানুষ নিখোঁজ৷ এছাড়া লক্ষাধিক শিশুর মাথা কেটে নেওয়া হবে বলে সোশ্যাল সাইটে লেখা হয়৷ এই গুজব এমন আকার নেয় যে চট্টগ্রাম, খুলনা রাজশাহী এলাকায় অনেকেই আতঙ্কিত হয়ে পড়েন৷